বিশ্ববিস্মিত সেরা ২০টি উদ্ভট ও অবাক করা রেষ্টুরেন্ট!

0
486
বিশ্ববিস্মিত সেরা ২০টি উদ্ভট ও অবাক করা রেষ্টুরেন্ট!

হ্যালো বন্ধুরা, আজ আপনারা দেখবেন পৃথিবীর সব আজব বিশ্ববিস্মিত রেষ্টুরেন্ট! এই রেষ্টুরেন্ট গুলো দেখলে আপনার চোখ কপালে উঠে যাবে। আপনি রেষ্টুরেন্টগুলো বিশ্বাস করুন আর নাই করুন, এটা সত্যি যে এসব রেষ্টুরেন্ট বিশ্বের বিভিন্ন দেশে রয়েছে। রেষ্টুরেন্ট গুলো পৃথিবীতে এতোই জনপ্রিয় যে আপনাকে যদি যেতে হয় তাহলে কিছু কিছু রেষ্টুরেন্ট এক বছর আগে থেকে বুকিং দিয়ে রাখতে হবে। নিচে বিশ্বের সেরা বিশ্ববিস্মিত রেষ্টুরেন্ট ‍গুলো সম্পর্কে আলোচনা করা হলো। প্রথম রেষ্টুরেন্ট হলো:

সুচি নেকেট রেস্টুরেন্ট

এই ধরনের রেস্টুরেন্ট জাপানে ব্যাপক বিস্তৃত। নিওতামোরি নামের অর্থ ‘নারীর শরীরের উপর খাবার পরিবেশন করা”। নাম সত্ত্বেও, পুরুষের শরীরও অনেক সময় ব্যবহার করা হয়।

আরো পড়ুন: পরকীয়াতে মহিলারাই বেশি উপভোগ করেন

এই অভ্যাস সামুরিয়ার সময় শুরু এবং গীতা সংস্কৃতির একটি অংশ ছিল। যুদ্ধ থেকে ফিরে আসা যোদ্ধাদের এই আকর্ষণীয় উপায়ে স্বাগত জানানো হত।

এই রেষ্টুরেন্টটি কানাডা, আমেরিকা, জাপান ও চীনে রয়েছে। এটি এমন এক রেস্টুরেন্ট যে এখানে প্লেটে খাবার দোয়া হয় না। মূলত উলঙ্গ মেয়েদের শরীরের মধ্যে ছড়িয়ে ছিটিয়ে খাবার পরিবেশন করা হয়। আর তা শুনতে অবাক লাগে যে তুলে তুলে খাবার খেতে হয়।এবং এই রেস্টুরেন্টে খাবার খাওয়ার জন্য মানুষ লাইন লাগিয়ে দেয়! এই রেস্টুরেন্টে খাওয়ার জন্য আপনাকে ৬ মাস আগে থেকে বুকিং দিতে হয়।

আরো পড়ুন: যদি আপনি প্রতিদিন আঙ্গুর খান তাহলে কি হয় দেখুন!

ডিনার ইন দ্যা স্কাই

ফ্লোটিং রেস্টুরেন্ট এটি কানাডা এবং ইংলেন্ডে অবস্থিত। আকাশের সীমানায় বসে রাতের খাবার খাচ্ছেন আপনি। কেমন হবে অভিজ্ঞতাটা? ক্রেনের সাহায্যে উপরে তোলা হবে আপনাকে, দেয়া হবে যে কোন খাবার আপনার পছন্দমত। অদ্ভুত মজার এই রেস্টুরেন্টটি আছে জাপান, ইন্ডিয়া, দুবাইসহ বিশ্বের ৪৫ টি দেশে।

আরো পড়ুন: মেদ ও ভুঁড়ি কমানোর (৪০) টি বৈজ্ঞানিক উপায়

মডার্ণ টয়লেট, তাইওয়ান

টয়লেট রেস্টুরেন্ট, এটি চায়না, জাপান, যুক্তরাষ্ট এবং লন্ডনে অবস্থিত। এই রেস্টুরেন্টটি তৈরী হয়েছে টয়লেটের সকল আসবাবপত্র দ্বারা। চেয়ারের জায়গা ব্যবহ্রত হয় কমেট এবং দেয়ালে আশেপাশে খাবারের প্রতিটি বাটি কৌটা সহ সকল কিছু টয়লেট এর সরন্জাম। শেষ পর্যন্ত কিনা টয়লেটে বসে খাওয়া? শুধু বসার ব্যবস্থাই টয়লেটসদৃশ নয়, খাবারের বাটি, চামচ, এমনকি টয়লেট সাদৃশ পানি ও খাবারগুলো দেখতে সেরকম।

আরো পড়ুন: গর্ভাবস্থায় প্যারাসিটামল খাওয়া কেন নিরাপদ নয়!

ক্যাবেজ এন্ড কন্ডমস-ব্যাংকক,থাইল্যান্ড

এমন উদ্ভট বুদ্ধির রেস্তরাঁ একমাত্র থাইল্যান্ডেই সম্ভব। রেস্টুরেন্টটি তো কন্ডম থিমে তৈরিই, রাতের খাবার শেষে প্রত্যেক ভোক্তাকে কন্ডম দিয়েও দেয়া হয় এক প্যাকেট!

আরো পড়ুন: ড্রাগন ফল খেলে কি হয়? দেখুন ড্রাগন ফলের সেরা পুষ্টিগুণ সমূহ!

ইথা আন্ডার সি রেস্টুরেন্ট

ইথা বিশ্বের প্রথম সমুদ্রের নিচের রেস্তোরাঁ। এটি মালদ্বীপের রাঙ্গালি দ্বীপে অবস্থিত। সমুদ্রের ১৬ ফুট নিচে কনরাড মালদ্বীপ রাঙ্গালি আইল্যান্ড হোটেলে তৈরি করা হয়। রেস্টুরেন্টটি সম্পূর্ণ কাঁচে ঘেরা। সমুদ্রের লোনা পানির কারণে যাতে এই রেস্তোরাঁ ক্ষয় হয়ে না যায়, এ জন্য স্টিলের কাঠামোর ওপর জিংক বা দস্তার কোটিং, অর্থাৎ প্রলেপ দেওয়া হয়েছে। এখানে ক্যাভিয়ার ও মালদ্বীপের গলদা চিংড়ি পরিবেশন করা হয়।

আরো পড়ুন: জাম্বুরার পুষ্টিগুণ ও স্বাস্থ্য উপকারিতা

ফরটেযা মেডিকিয়া রেস্টুরেন্ট ভলেন্টেরা,ইটালি

এটি এমন একটি রেস্টুরেন্ট যেখানে টাকা দিয়ে আপনি জেলখানায় রাত কাটাতে পারবেন, এমনকি কয়েদিদের মত খাবার এবং ব্যবহার পাবেন।

আরো পড়ুন: উচ্চ রক্তচাপের বা হাই প্রেসারের ৪০টি কারণ জেনে নিন!

লেবিসিন ওয়াটারফল রেস্টুরেন্ট

ফিলিপাইনে ভিলা এসকুডারো নামক একটি জায়গা রয়েছে যেখানে আপনি একটি ছোট জলপ্রপাতের পাদদেশে অবস্থিত লাবাসসিন ঝর্না রেস্টুরেন্টে যেতে পারবেন। 

টেবিলগুলির পায়া পানিতে ডুবানো থাকে এবং রেষ্টুরেন্টটি বেশিরভাগ সময় সেইসব পর্যটক দ্বারা ভ্রমণ করা হয় যারা একটি অদ্ভুত পরিবেশে ফিলিপাইনের রান্না খেতে চায়।

আরো পড়ুন: আদার ৩০টি উপকারিতা ও ক্ষতিকর দিক সমূহ

ক্রিস্টোন ক্যাফে-টোকিও,জাপান

বিশাল ক্রুশবিদ্ধ যীশুমূর্তি, দাগকাটা কাঁচের জানালা, বাইবেলের লিখন সবমিলিয়ে চার্চ, কিন্তু আসলে রেস্টুরেন্ট। কফিন আকৃতির মেনু কার্ড দেওয়া হয় টোকিওর চার্চ থিমের এই রেস্টুরেন্টে।

আরো পড়ুন: মন জুড়ানো বিশ্বের সবচেয়ে সুন্দর ১৫টি মসজিদ

জিরাফ মেনর রেস্টুরেন্ট

কেনিয়ার নাইরোবিতে বিভিন্ন প্রজাতির রোসচাইল্ড জিরাফের অভয়ারণ্যের পাশে গড়ে উঠেছে জিরাফ ম্যানর নামে এই হোটেলটি। আর এখানকার সবচেয়ে আকর্ষণীয় বিষয়টি হচ্ছে প্রাতরাশ, তবে খাবার নয় বিস্মৃত হবেন তখন টেবিলে বসে যখন দেখবেন বিভিন্ন বয়সী বেশ কিছু জিরাফ জানালা দিয়ে মাথা গলিয়ে নিজের খাবারটি দাবি করছে এবং অবলীলায় আপনার প্লেটের খাবার সাবার করে দিচ্ছে।

আরো পড়ুন: বিশ্বের সবচেয়ে ছোট ১০টি দেশ (ছবিসহ)

অবশ্য এদের খাওয়ানোর জন্য ব্যাগ ভর্তি খাবার সরবরাহ করবে হোটেল কর্তৃপক্ষ। সদর দরজা বা বেডরুমের জানালা দিয়েও খাওয়ানো যাবে এই জিরাফদের, সেই সাথে এই বিপন্ন প্রাণীদের কাছ থেকে দেখা ও জানার সুযোগ তো থাকছেই। ১৯৮৩ সালে যাত্রা শুরু করে ছোট্ট এই হোটেলটি।২০০৯ সাল থেকে হোটেলটি পরিচালনা করছে দা সাফারি কালেকশন গ্রুপ।

টুইন স্টার রেস্টুরেন্ট, রাশিয়া

টুইন স্টার রেস্টুরেন্ট, এটি রাশিয়ার মস্কেতে অবস্থিত। এটি এমন এক বিস্ময়কর রেস্টুরেন্ট যেখানে দারোয়ান থেকে শুরু করে ওয়েটার ও সকল কর্মচারী সবাই জমজ। এখানে রেস্তরার প্রধান বৈশিষ্ট্য হলো প্রতি জোড়া জমজ এক সাথে একই ড্রেসে চলাফেরা করে। পুরো রাশিয়া জুড়ে এই জমজদের খুঁজে বের করে তাদের চাকরি দেয়া হয়।

আরো পড়ুন: বিশ্বের চোখ ধাঁধানো ১২টি মনোমুগ্ধকর লেক

রোবট রেস্টুরেন্ট-টোকিও,জাপান

বিস্ময়ের দুনিয়া থেকে রোবটই বা বাদ যাবে কেন? রোবটের উদ্ভট নাচ আর গানের তালে তালে সেরে নিতে পারেন রাতের খাবার এই রেস্টুরেন্টে।   

আরো পড়ুন: বিশ্বের অবাক করা ২০টি স্থাপত্য ও দর্শনীয় স্থানসমূহ!

আন্ডার ওয়াটার রেস্টুরেন্ট

এটি মালদ্বিপে অবস্থিত। পৃথিবীর প্রথম সমূদ্র তলদেশের রেস্টুরেন্ট এটি। সামুদ্রিক খাবার সমুদ্রের প্রাণীদের দেখতে দেখতে উপভোগ করুন এখানে।

আরো পড়ুন: বিশ্বের সবচেয়ে দামি ও দ্রুতগতির ১০টি সুপার বাইক

কনডম রেষ্টুরেন্ট

হা হা .. শুনতে অবাক লাগলেও সত্যি ভাই। এটি থাইলেন্ডে অবস্থিত। এই রেস্তরার মালিক একজন কন্ট্রাসেপটিক একটিভিষ্ট তাই গর্ভনিরোধ এবং জনসংখ্যা নিয়ন্ত্রনের বার্তা হিসাবে পৌঁছানোর জন্য এই কনডম রেস্টুরেন্টটি তৈরী করেন। এই রেস্টুরেন্টেুর চারদিকে কনডম দিয়ে সাজানো। এবং খাওয়ার শেষে বিল দেয়ার সময় একটি কনডম দেয়া হবে।

ক্যাফে ইকান রেস্টুরেন্ট

ভিয়েতনামে এর হো সি মি সিটিতে রয়েছে এই অদ্ভুত রেস্টুরেন্টটি। যেখানে ঢুকতে হলে আপনাকে জুতো খুলে নিতে হবে । কারণ, এই রেস্টুরেন্টের মেঝে জলমগ্নতো বটেই, গোটা রেস্টুরেন্ট-এ গিজগিজ করছে ছোটোবড়ো রংবেরঙের মাছ ।

আরো পড়ুন: এমন ১০টি অদ্ভুদ প্রাণী যা দেখলে আপনি চমকে উঠবেন!

আপনি চাইলে মেঝেতে পা ডুবিয়ে ভোজনপর্ব সেরে নিতে পারবেন, যখন একঝাক মাছ আপনার পায়ের কাছে ঘুরঘুর করতে থাকবে । চাইলে মাছের জন্য খাবার সংগ্রহ করে খাওয়াতে পারবেন এই মাছদেরও । রেস্টুরেন্টের এই অভাবনীয় ধারণা ভোজনরসিকরা লুফে নিয়েছেন সাগ্রহেই। তবে মাছেদের সাথে খাওয়ারই ব্যাবস্থা রাখা হয়েছে এখানে, খেতে বসে মাছ ধরার কোন সুযোগ নেই।

নেকেট রেস্টুরেন্ট, লন্ডন

জি আপনি যা দেখতেছেন, তাই সত্যি। হ্যা, দিন দিন মানুষের চিন্তা ধারণা কতটা নিচে নেমে যাচ্ছে! এই রেস্টুরেন্ট এর মালিক বলেন, আমরা মানুষ কে আধি যুগের সেই ছোয়া দিতে চাই। এখানে রেস্টুরেন্টের প্রতিটি থালা বাসন মাটির তৈরী এবং আপনাকে মাটিতে বসে খেতে হবে।

আরো পড়ুন: বাংলাদেশের সেরা ৫০টি দর্শনীয় স্থান

আপনি জানলে অবাক হবেন যে, এই রেস্তরার ওয়েবসাইটে প্রতিদিন ৫০ হাজারের ও বেশি মানুষ বুকিং দিতে আসে। তাই আপনি যদি এই রেস্টুরেন্ট যেতে চান তাহলে ৬মাস আগে থেকে বুকিং দিয়ে রাখতে হবে।

বরফ রেস্টুরেন্ট

রেস্টুরেন্টে খেতে বসলে বরফ দিয়ে তৈরি খাবার পেতেই পারেন। হোটেলে থাকতে পারে বরফ পানির ব্যবস্থা। কিন্তু যদি পুরো ব্যাপারটাই বরফ হয়। মানে যদি এমন হয় যে যেই হোটেলে খেতে বসেছেন তার পুরোটাই তৈরি বরফে? সম্প্রতি ফিনল্যান্ডের কিট্টিলা নামক এলাকায় তৈরি হয়েছে একটি আইস হোটেল।

এই হোটেল তৈরিতে ব্যবহার করা হয়েছে কেবল বরফ ও বরফের গুঁড়া। হোটেলের কিংস ল্যান্ডিং নামক হলও তৈরি করা হয়েছে বরফে। কেউ চাইলে সেখানে সারতে পারেন নিজের বিয়েও।

আরো পড়ুন: এন্টার্কটিকা সম্পর্কে ১৫ টি চাঞ্চল্যকর তথ্য

উত্তর মেরুর আর্টিক সার্কেলের ১২০ মাইল উপরে ফিন্নিশে তৈরি করা হয়েছে এই ল্যাপল্যান্ড হোটেল। এটি তৈরিতে ব্যবহার করা হয়েছে ৮ লক্ষ ৮০ হাজার পাউন্ড বরফ।

বিভিন্ন দেশের ১২ জন শিল্পী প্রায় ৫ সপ্তাহ ধরে তৈরি করেছেন এই হোটেলটি। এই হোটেলে বরফের গায়ে তুলে ধরা হয়েছে গেম অব থ্রোনসের বিভিন্ন চরিত্র।

এয়ারবাস এ৩২০ রেস্টুরেন্ট

উড়োজাহাজ হাইওয়েতে পার্ক করা। আর এর ভেতরে পরিবেশিত হচ্ছে নানা স্বাদের খাবার। কেমন হয় বলুন তো? ‘রানওয়ে ওয়ান’ এমনই একটি রেস্টুরেন্ট। এয়ারবাস এ৩২০ উড়োজাহাজটি ভারতের পাঞ্জাবের আম্বালা-দিল্লী ন্যাশনাল হাইওয়ে ওয়ানে পার্ক করা। পাঞ্জাবের লুধিয়ানায় হাওয়াই আড্ডার পর ‘রানওয়ে ওয়ান’ দ্বিতীয় রেস্টুরেন্ট, যা উড়োজাহাজই বিমানে পরিণত হয়েছে।

আরো পড়ুন: ফুসফুস শক্তিশালী বা পরিস্কার করতে যে খাবার ও ব্যায়াম খুব জরুরী

স্থির উড়োজাহাজটি প্রায় দেড় এক একর জমির ওপর দাঁড় করানো। আর এটি বর্তমানে শাহবাদ ব্যবসায়ী পরিবারের মালিকানাধীন। এয়ার ইন্ডিয়া এই বিমানটিকে পরিত্যক্ত ঘোষণা করার পর এই অভিনব রেস্টুরেন্টটি খোলা হয় গত বছর ২৭ নভেম্বর।

ক্যাট ক্যাফে নেকরবি

জাপানের ক্যাট ক্যাফেতে খাবার খেতে পছন্দ করেন অনেকেই। এখানে এক ঝাঁক বিড়াল আপনাকে সঙ্গ দেবে। তারা আপনার সঙ্গে খেলবে, মজা করবে এবং আপনার খাওয়ার সময়টাকে আনন্দময় করে তুলবে। তবে বিড়ালগুলো কোনোভাবেই আপনার খাবার গ্রহণের আনন্দকে মাটি করবে না।

আরো পড়ুন: এমন ২০টি খাবার, যা আপনার যৌনশক্তিকে দ্বিগুণ করবে!

কেব রেস্টুরেন্ট

অদ্ভুত যত রেস্টুরেন্ট আছে এর মধ্যে গুহা রেস্টুরেন্টের ধারণাটি আফ্রিকায় বেশ জনপ্রিয়। আফ্রিকার দক্ষিণ ‘মোম্বাসার ডায়ানি’ সমুদ্র সৈকতে এই রেস্টুরেন্টটি অবস্থিত। পাঁচ লাখ বছর পুরানো একটি গুহায় এই রেস্টুরেন্টটি নির্মাণ করা হয়েছে বলে ধারণা করেন বিশেষজ্ঞরা।

আরো পড়ুন: বিটরুট কি? বিটরুটের উপকারিতা

বিস্ময়কর একটি ব্যাপার হলো প্রাকৃতিকভাবে সম্পূর্ণ গুহাটিতে হরেক রঙের প্রবাল ও চুনাপাথরের সংমিশ্রণ রয়েছে যা এর সৌন্দর্যকে কয়েক গুণ বাড়িয়ে দিয়েছে।

নিউ লাকি রেস্টুরেন্ট

রেস্টুরেন্টে ঢোকার আগে বলে নিই জায়গাটি দুর্বলচিত্তের ব্যক্তিদের জন্য নয়, কারণ প্রথমেই এটার ভেতরের দৃশ্য দেখে আপনার দাঁত-কপাটি লাগার সাথে সাথে হার্টের বিট কয়েকটি মিসও হয়ে যেতে পারে।

আরো পড়ুন: গর্ভধারণের সম্ভাবনা ও ডিম্বাণু বৃদ্ধির ১২টি বিশেষ খাবার

পুরো রেস্টুরেন্টটি একটি সমাধিক্ষেত্রের উপর বানানো। প্রায় প্রতিটি চেয়ার-টেবিলের সারির মাঝেই ছড়ানো-ছিটানো রয়েছে কবর। নকল কবর নয়, একেবারে আসল কবর! যদিও পুরো রেস্টুরেন্টের এই সবুজ রঙের কবরগুলো ভয়ের উদ্রেক করে, তবুও এতে মানুষের কমতি নেই। কেউ জানে না কারা কবরগুলোর মালিক। প্রতিদিন সকালে রেস্তরাঁর মালিক নিজে কবরগুলো ভেজা কাপড় দিয়ে মুছে পরিষ্কার করেন, ফুলের অর্ঘ্য ছিটিয়ে দেন মৃতদের উদ্দেশ্যে।

প্রিয় পাঠক, আপনিও সম্ভব ডটকমের অনলাইনের অংশ হয়ে উঠুন। লাইফস্টাইল বিষয়ক ফ্যাশন, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, নারী, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, খাবার, রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ ইনবক্স করুন- আমাদের ফেসবুকে প্রতিদিনের স্বাস্থ্য টিপস লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে।

Posted by: Tanjin alifa Rima

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here