এমন ২০টি খাবার, যা আপনার যৌনশক্তিকে দ্বিগুণ করবে!

794
সম্ভব ডটকম
প্রতিকী ছবি

সম্ভবডটকম অনলাইন ডেস্ক »

পুরুষ হোক কিংবা নারী, প্রত্যেকেই যৌন আগ্রহ ও আনন্দ বা উপভোগ করতে চায় তুলনা মূলক বেশি। কামশক্তি বাড়াতে চান? সেটা তো আর হুট করে বেড়ে যাবে না। কিছু না কিছু করতে হবে আপনাকে। তবে ভয় পাওয়ার কিছুই নেই! আপনাকে তেমন কোন পরিশ্রমের কাজ করতে হবেনা।

আমাদের শরীরকে মেদহীন রাখতে, যৌনজীবনকে সচল রাখতে ও প্রজনন ক্ষমতা স্বাস্থ্য ঠিক রাখতে আমাদের শরীরে ভিন্ন হরমোনের সঠিকভাবে কাজ করাটা অত্যন্ত প্রয়োজন। পুরুষ বা মহিলাদের যৌনক্ষমতা শক্তি যদি কম থাকে, তবে তা কিন্তু তার নারীত্ব বা পুরুষত্বহীনতার পরিচয় অত্যান্ত লজ্জাজনক। আর এর প্রভাব তার সঙ্গীর যৌনজীবনেও পড়তে পারে নেতিবাচক প্রভাব।

সম্ভব ডটকম
প্রতিকী ছবি

বিবাহিত জীবনে শারীরীক মিলনে ফিট থাকতে হলে আপনাকে দৈনন্দিন খাবারের প্রতি পূর্ণ মনোযোগী হতে হবে। কারণ সুখী দাম্পত্য জীবনের জন্য স্বামী ও স্ত্রীর দরকার স্বাস্থ্যকর যৌন জীবন। কিন্তু অধিকাংশই দেখা যায়, যৌন সমস্যার কারনে সংসারে অশান্তি হয়, এমনকি বিচ্ছেদ পর্যন্ত হয়ে যায়।

আরো পড়ুন: লজ্জা নয় জানতে হবে; বেশিক্ষন বীর্য ধরে রাখার বিশেষ টিপস

সেক্স হরমোন-এর সমতার অভাবে আপনার যৌন ইচ্ছা নষ্ট হতে পারে, কামশক্তি ক্ষীণ হতে পারে, প্রজননের ক্ষমতা ধ্বংস হতে পারে এবং এর ফলে সম্পর্কের বিচ্ছেদ ঘটতে ও বেশি সময় লাগবে না। তাই আগে থেকে সতর্ক থাকলেও এমন পরিস্থিতির মুখোমুখি নাও হতে পারেন আপনি।

তাই মহিলা বা পুরুষের কামশক্তি বাড়ানোর বিশেষ কয়েকটি পদ্ধতির কথা বলেছেন বিশেষজ্ঞ ডাক্তাররা। নিচের টিপসগুলো ফলো করলে, ইনশাআল্লাহ আপনার যৌনশক্তি বা কামশক্তি আগের ছেয়ে দ্বিগুণ হবে।

ম্যাসাজ

রাত্রে ঘুমানোর পর পুরুষের যদি সহবাস করতে ইচ্ছা হয় কিন্তু স্ত্রীর যদি ইচ্ছা না করে তাহলে রুমের আলো কম করে স্ত্রীর গায়ে এবং পিঠে আল্ত করে ম্যাসাজ করুন। এটা করলে আপনার স্ত্রীর সহবাস করতে ইচ্ছা করবে।

যাদের মানসিক ভাবে অনেক চিন্তা থেকে থাকে অর্থাৎ দূরচিন্তা করে থাকেন তাদের সহবাসের ইচ্ছা অনেকটা কমে যাই। কিন্তু ম্যাসাজের মাদ্ধমে এই দূরচিন্তা দূর করা সম্ভব হয়ে থাকে এবং সহবাসে সুখ অনুভব করা সম্ভব হয়।

রঙিন ফল

সম্ভব ডটকম

শরীর সুস্থ্য রাখতে বা যৌন স্বাস্থ্য ভালো রাখতে রঙিন ফলমূল এর বিকল্প নাই। তার মধ্যে আঙ্গুর, কমলা লেবু, তরমুজ, পিচ ইত্যাদি ফল যৌন ক্ষমতা বৃদ্ধির জন্য অত্যন্ত উপকারী।

আরো পড়ুন: যৌন বিশেষজ্ঞ ডাক্তারদের গুরুত্বপূর্ণ ১০১টি প্রশ্ন উত্তর!

এক গবেষণা অনুযায়ী, একজন পুরুষের প্রতিদিনের খাবার তালিকায় অন্তত ২০০ মিলিগ্রাম ভিটামিন সি থাকলে তার স্পার্মের কোয়ালিটি উন্নত হয়।

আবার A&M ইউনিভার্সিটির মতে, তরমুজ শরীরে যৌন উদ্দীপনা বৃদ্ধি করে। তারা যৌন উদ্দীপক ওষুধ ভায়াগ্রার সাথে তরমুজের তুলনা করেছেন।

মন স্থির রাখা

আপনার অর্থাৎ পুরুষের যদি নতুন বিবাহ হয়ে থাকে তাহলে হয়তোবা আপনার স্ত্রী প্রথম প্রথম সহবারে মত দিবে না। এটা কিনে আপনাকে কোনো চিন্তা করতে হবে না।

মেয়েরা তখন অনেক চিন্তার মদ্ধে থাকে আর এটার জন্য সহবাসে মন দিতে পারে না, এটা অনেকের ক্ষেত্রে হয়ে থাকে। এমতাবস্থাই আপনাকে বুঝতে হবে সে কখন কোনো চিন্তা করে না, সেই সময় তাকে আপনার ইচ্ছার কথা ভালো ভাবে বুঝিয়ে বলুন তাহলে আপনার স্ত্রী সহবাসে সহমত দেবে।

আর ভালো ভাবে বোঝানোর পরেও যদি সহবাসে মত না দেয় তাহলে আপনাকে অবস্যই একজন যৌন রোগ বিশেষঙ্গের সরণাপন্ন হতে হবে।

আরো পড়ুন: প্রথম সেক্স করার ক্ষেত্রে প্রয়োজনীয় ১০টি টিপস ✅

দুধ

যে খাবারে প্রাণিজ-ফ্যাট আছে এমন খাদ্য আপনার যৌনজীবনের উন্নতি ঘটায়। যেমন, খাঁটি দুধ, দুধের সর, মধু, মাখন ইত্যাদি।

মধু

যৌন দুর্বলতার সমাধানের মধুর গুণের কথা সবারই কম-বেশি জানা। তাই যৌন শক্তি বাড়াতে প্রতি সপ্তাহে অন্তত ৩/৪ দিন ১ গ্লাস গরম দুধ ১ চামচ খাঁটি মধু মিশিয়ে পান করুন। শুধু যৌন উত্তোজনা না আপনার শরীরের ও অনেকখানি স্বাস্থ্যগত পরিবর্তন আসবে।

বেশিরভাগ মানুষই ফ্যাট জাতীয় খাবার এড়িয়ে যায়। কিন্তু আপনি যদি শরীরে সেক্স হরমোন বৃদ্ধি করতে চান তাহলে প্রচুর পরিমাণে ফ্যাট জাতীয় খাবার খান। তবে সবগুলো প্রাকৃতিক হতে হবে।

অ্যাভোকাডো

অ্যাভোকাডোতে প্রচুর ভিটামিন বি-সিক্স এবং পটাসিয়াম থাকে। এর ফলে এটা খেলে আপনার কাম ইচ্ছা এবং যৌন সামর্থ্য বৃদ্ধি পায়। এই ফলের এই নির্দিষ্ট বৈশিষ্ট্যটির কারণে একে স্প্যানিশ প্রিস্টরা নিষিদ্ধ করেছিল।

গাজর

গাজরে রয়েছে ভিটামিন ‘এ’ যা পুরুষদের হরমোন তৈরিতে সাহায্য করে। গাজর পেতে আপনার কোনও অসুবিধার কথা নয়। রোজই বাজারে পাবেন মেরুন আর কমলা রঙের এই দুই সবজি।

বাজার থেকে টাটকা ফ্রেস গাজর রোজ কিনে আনবেন। আর অবশ্যই প্রতিদিন খাবারের সাথে বা ফল হিসাবে ও আপনি খেতে পারেন। দেখবেন, বিছানাতেও আপনি আগের থেকে কত চনমনে।

আরো পড়ুন: হস্তমৈথুন বাদ দিলে ঘন ঘন স্বপ্নদোষ হয়?

তরমুজ

অবশ্যই তরমুজ খাবেন। এমনিতেই গ্রীষ্মকালে তরমুজ খেতে সকলেরই খুব ভাল লাগে। ফলটা দেখতে যেমন সুন্দর, গরমে শরীর ঠাণ্ডা করতেও এর তুলনা নেই। আর থাকল পড়ে, কামউত্তেজনার কথা? উহু, তরমুজ আপনাকে উপরে চিরসবুজ, ভিতরেও চিরসবুজ রাখবে।

আরো পড়ুন: কিভাবে চিনবেন অধিক চাহিদার যৌন আবেদনময়ী মেয়ে?

রসুন

যৌন সমস্যা থাকলে এখনই নিয়মিত রসুন খাওয়ার অভ্যাস গড়ে তুলুন। স্মরণাতীতকাল থেকেই নারী পুরুষ উভয়েরই যৌন উদ্দীপনা বাড়াতে এবং জননাঙ্গকে পূর্ণ সক্রিয় রাখতে রসুনের পুষ্টিগুণের কার্যকারিতা সর্বজনস্বীকৃত।

রসুনে রয়েছে এলিসিন নামের উপাদান যা যৌন ইন্দ্রিয়গুলোতে রক্তের প্রবাহ বাড়িয়ে দেয়।

আরো পড়ুন: রসুনে ৪০টির ও বেশি উপকারিতা

বাদাম

চিনা বাদাম, কাজু বাদাম, পেস্তা বাদাম ইত্যাদিতে শরীরের জন্য প্রয়োজনীয় মনোস্যাচুরেটেড ফ্যাট আছে। বাদামে প্রচুর পরিমাণে পুষ্টি বিদ্যমান যা বিষণ্ণতার মতো পরিস্থিতি থেকে খুব সহজেই পরিত্রাণ দেয়।

এছাড়া বাদামে জিঙ্ক থাকায় শুক্রাণুর পরিমাণ তুলনামূলক হারে বৃদ্ধি পায়। প্রজনন ক্ষমতা ও যৌনাঙ্গের স্বাস্থ্যের উন্নতির জন্য প্রায় সময় ডাক্তাররা বাদাম খেতে পরামর্শ দেন।

ফিটনেস

যৌনক্ষমতা বা আপনার কামশক্তি বৃদ্ধি করার সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ উপায় হলো ফিটনেস। এটি পুরুষের জন্য বিশেষ প্রয়োজনীয় ও কার্যকরী। এতে সুস্থ্য থাকার পাশাপাশি শরীরে ফ্যাট টেস্টোটেরন উৎপাদনে বাধা দেয়।

এছাড়াও পুরুষের পেটের চর্বি টেস্টোস্টেরণকে শোষণ করে নেয়। নারী এবং পুরুষ উভয়ের ক্ষেত্রেই অ্যারোবিক এক্সারসাইজ গুরুত্বপূর্ণ। এটি শরীরের যৌন অঙ্গে রক্তচলাচল বৃদ্ধি করে।

টমেটো

SOMVOB.COM
Somvob.com

এই সবজিটিও খেতে ভালবাসে না, এমন মানুষ কম পাওয়া যায়। পেট ভরে খাবার পর, একটু টমেটোর চাটনি হলে তো কোনও জবাবই নেই। টমেটো, অলিভ, কড়াইশুঁটি, রসুন, সূর্যমুখী ফুলের বীজ, ব্রকোলি, ডালিমের রস ইত্যাদি।

এবার নিয়ম করে একটু পাকা টমেটো, রান্না না করে কাঁচা খান। দেখবেন, আপনার যৌনক্ষমতাও কেমন টইটম্বুর হবে। অন্যদিকে জাঙ্কফুড, বেকড খাবার ও দুধ জাতীয় খাবার কামশক্তিকে মেরে ফেলে।

কলা

কলায় প্রচুর পরিমাণে পটাশিয়াম ও রিবোফ্লাবিন আছে যা শরীরিক শক্তি বৃদ্ধি করে ও শরীরকে সুস্থ রাখতে সহায়তা করে। একই সাথে বীর্যের মান উন্নত করতেও ভূমিকা রাখে কলা। কলা খেতেও নিশ্চয়ই আপনার খুবই ভাল লাগে।

কলা খেলে, আপনার শরীরকে রাখে সতেজ। আর কলা আপনার রক্তচাপকেও নিয়ন্ত্রণ করে। তাই দুর্বল লাগবে না একদম।

আরো পড়ুন: যৌনমিলন কোন বয়সে হওয়া খুব বেশি জরুরী?

কালো চকলেট

চকলেটে ক্যাফেইন জাতীয় উপাদান থিওব্রোমাইন আছে। শুধু মুখের স্বাদের জন্যই হরদম চকোলেট খেয়ে এসেছেন এতদিন। এবার সঙ্গীকে খুশি করতেও চকোলেট খান। গবেষণায় জানা গেছে যে ডার্ক চকোলেট খেলে সঙ্গীর প্রতি আকর্ষণবোধও বেড়ে যায়।

এছাড়াও ডার্ক চকোলেটে প্রচুর পরিমাণে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট আছে। তাই প্রতিদিন শতকরা ৭০ ভাগ কোকোযুক্ত ডার্ক চকোলেটের ২ ইঞ্চির একটি টুকরো খেয়ে নিন। মাত্র ১০০ ক্যালরী আছে এই আকৃতির একটি টুকরোতে যা আপনার যৌন স্বাস্থ্যের জন্য অত্যন্ত উপকারী।

বিশেষ করে ডার্ক চকোলেটে প্রচুর পরিমাণে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট থাকে যা শারীরিক সক্ষমতা বৃদ্ধি করে, বীর্যের মান উন্নত করে ও রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়।

আরো পড়ুন: ছেলেদের যে ৭টি কারণে মেয়েরা কাঁদে!

চকলেট, কফি মেজাজ ভাল রাখে, এন্ডরফিন ক্ষরণে সাহায্য করে, শক্তি প্রদান করে এবং শারীরিক দীর্ঘস্থায়িত্ব বৃদ্ধি করে। ব্যস, আর কী? এবার থেকে নিয়ম করে এই পাঁচ খাবার মুখে তুলুন। আর থাকুন কাম উত্তেজনায় ভরপুর।

ডিম

আমরা প্রায় সময় লক্ষ্য করলে দেখি, যে বাসর ঘরে স্বামী তার স্ত্রীকে দুধ ও ডিম খাওয়ায়! কিন্তু কেন? ডিমে আছে ভিটামিন বি৫ ও বি ৬। ডিমে প্রচুর পরিমাণে প্রোটিন আছে যা স্পার্ম-এর গুনগত মান বৃদ্ধি করতে সহায়তা করে ও শারীরিক সক্ষমতা বৃদ্ধি করে।

যৌন দুর্বলতা দূর করতে ও যৌন উত্তেজনা বাড়াতে এক অসাধারণ খাবার দুধ। প্রতিদিন সকালে, না পারেন সপ্তাহে অন্তত ৫ দিন ১টি করে ডিম সিদ্ধ করে খান। এতে আপনার যৌন দুর্বলতার কার্যকর ক্ষমতা বৃদ্ধি পাবে।

কলিজা

অনেকেই কলিজা খেতে একদম পছন্দ করে না। কিন্তু আপনার যৌন জীবনে খাদ্য হিসেবে কলিজার প্রভাব ইতিবাচক। কারণ, কলিজায় প্রচুর পরিমাণে জিঙ্ক থাকে। আর এই জিঙ্ক শরীরে টেস্টোস্টেরন হরমোনের মাত্রা বেশি পরিমাণে রাখে।

যথেষ্ট পরিমাণ জিঙ্ক শরীরে না থাকলে পিটুইটারি গ্রন্থি থেকে হরমোন নিঃসৃত হয় না। পিটুইটারি গ্রন্থি থেকে যে হরমোন নিঃসৃত হয় তা টেস্টোস্টেরন তৈরি হওয়াতে সাহায্য করে।

আরো পড়ুন: যৌনশক্তি বা কামশক্তি বৃদ্ধির ৪০টি স্মাট উপায়

তাছাড়া জিঙ্ক এর কারণে আরোমেটেস এনজাইম নিঃসৃত হয়। এই এনজাইমটি অতিরিক্ত টেস্টোস্টেরোনকে এস্ট্রোজেনে পরিণত হতে সাহায্য করে। এস্ট্রোজেনও আপনার যৌনতার জন্য প্রয়োজনীয় একটি হরমোন।

মাংস

ডায়েটে চর্বি ছাড়া মুরগীর মাংস রাখা মানেই সুস্বাস্থ্যের দিকে এক ধাপ এগিয়ে যাওয়া। তার মানে এই নয় আপনি বাজার থেকে ফার্মের মুরগী এনে খাবেন। তবে হ্যা, পারলে দেশী মুরগী মানে প্রাকৃতিক ভাবে বেড়ে উঠা মুরগীর মাংস বেশ উপকারী।

এতে শরীরে পেশির পরিমাণ বৃদ্ধি পায়। অতিরিক্ত চর্বি কমে যায়, শক্তি বৃদ্ধি পায়। মুরগীর মাংসে প্রচুর পরিমাণে প্রোটিন উপস্থিত। যৌন জীবনকে আরো আনন্দময় করতে কম ফ্যাটযুক্ত গরুর মাংস খান।

যেমন গরুর কাঁধের মাংসে, রানের মাংসে কম ফ্যাট থাকে এবং জিঙ্ক বেশি থাকে। এইসব জায়গার মাংসে প্রতি ১০০ গ্রামে ১০ মিলিগ্রাম জিঙ্ক থাকে। এতে শরীরে অন্যান্য অঙ্গের ন্যায় পুরুষদের যৌনাঙ্গে রক্ত চলাচল স্বাভাবিক থাকে।

সঙ্গীর যদি যৌন ইচ্ছে হারিয়ে যেতে থাকে, তবে নিজেকে শান্ত রাখুন। তাকে বুঝতে সময় নিন এবং নিজের মনের কথা তাকে বুঝিয়ে বলুন। এছাড়াও এমন হলে চিকিৎসকের পরামর্শ নিন।

আমাদের ফেসবুজ ফেজ লাইক দিয়ে সঙ্গেই থাকুন। প্রতিদিনের স্বাস্থ্য টিপস