ভক্তদের ফোনে কথা বলার অপেক্ষায় মোশাররফ করিম

44
Mosharraf Karim
Mosharraf Karim

মোশাররফ করিম ১৯৭১ সালের ২২ আগস্ট বাংলাদেশের ঢাকায় জন্মগ্রহণ করেন। তার পৈতৃক বাড়ি বরিশালে। বাংলাদেশী ইংরেজি দৈনিক ডেইলি স্টার-এ দেয়া এক সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন যে তার অভিনয়ে দক্ষতা জন্ম নেয় তার স্কুল থিয়েটারে। সেই থেকে শুরু মোশাররফ করিমের অভিনয় যাত্রা।

মঞ্চ থেকে টিভি নাটক। তারপর চলচ্চিত্র। সবখানেই সোনা ফলিয়েছেন তিনি। দর্শকের কাছে বিনোদনের জাদুর বাক্স মোশাররফ করিম। যেখানে আছে সব রকম চরিত্রের জয়জয়কার। তিনি মোশাররফ করিম। প্রায় এক যুগ তিনি রাজত্ব করে চলছেন এ দেশের টিভি নাটকে। চলচ্চিত্রেও দেখিয়েছেন নিজের মুন্সিয়ানা।

ফোনের অপেক্ষায় মোশাররফ করিম

Mosharraf Karim
Mosharraf Karim

অভিনয় জীবনে তার প্রাপ্তিও অনেক। তাইতো এই দীর্ঘ ক্যারিয়ারে মোশাররফ করিমের ভক্ত সংখ্যাও কম নয়।
নানা সময় আরোচনায় আসে মোশাররফ করিমের ভক্তদের নানা পাগলামি।

ভক্তরা চান তাদের এই প্রিয় তারকার সাথে দেখা করতে কিংবা কথা বলতে। অবশেষে আসলো সেই সুযোগ।

ভক্তরা কথা বলতে পারবেন মোশাররফ করিমের সঙ্গে। তাকে ফোন করলেই ভক্তদের প্রশ্নের উত্তর দিবেন তিনি।

আজ বৃহস্পতিবার রাত ৮টায় যেকোনো রবি ও এয়ারটেল নাম্বার থেকে ২২২৮৮ নাম্বারে কল করলেই এই অভিনেতার সঙ্গে কথা বলা যাবে।

এ বিষয়ে এক ভিডিও বার্তায় মোশাররফ করিম বলেন, ‘দর্শকদের সঙ্গে গল্প করার জন্য দারুণ একটা সুযোগ পেয়েছি। আজ ঠিক রাত ৮টায় আমি থাকছি স্টার জোন সার্ভিসে।

থাকবো শুধু মাত্র দর্শকদের সঙ্গে আড্ডা দিতে। আমি রেডি আপনারা রেডি তো? আমি থাকবো শুধু আপনাদের অপেক্ষায়।’

এদিকে মোশাররফ করিমের সঙ্গে দর্শকদের সরাসরি কথা বলার সুযোগ করে দিচ্ছে রবি-এয়ারটেল ও লাইভ এন্টারটেইনমেন্ট। এর আগেও দেশের অনেক জনপ্রিয় তারকা হাজির হয়েছেন এই আয়োজনে। এবার সেই আয়োজনের অতিথি মোশাররফ করিম।

উল্লেখ্য, ১৯৯৯ সালে তিনি অতিথি শিরোনামের একটি নাটকে প্রথম অভিনয় করেন মোশাররফ করিম। এরপর থেকেই শুরু। ২০০৪ সালে আমজাদ হোসেন রচিত উপন্যাস অবলম্বনে তৌকির আহমেদ নির্মিত জয়যাত্রা চলচ্চিত্রে অভিষেক হয় তার।

ই পাসপোর্ট(E-passport): আবেদন প্রক্রিয়া, ফি ও সকল সুযোগ-সুবিধা‬ সমূহ

মোশাররফ করিমের পেশা

মোশাররফ করিম ছোট পর্দায় ১৯৯৯ সালে এক পর্বের নাটক অতিথি-তে অভিনয়ের মাধ্যমে যাত্রা শুরু করেন। চলচ্চিত্র জয়যাত্রা ২০০৪ সালে এবং তিনি প্রথম টিভি সিরিয়ালে কাজ করেন ২০০৮ সালে। এটিই মোশাররফ করিমের পর্দায় অভিষেক।

তিনি অনেক কমেডি সিরিয়ালে কাজ করেছেন যেমন- রূপকথার গল্প (২০০৬), দারুচিনি দ্বীপ (২০০৭), থার্ড পারসন সিঙ্গুলার নাম্বার (২০০৯), প্রজাপতি (২০১১), টেলিভিশন (২০১৩), জালালের গল্প (২০১৫), অজ্ঞাতনামা (২০১৬), দেওয়াল আলমারি (২০০৮), হাউস ফুল, চাঁদের নিজের কেন আলো নেই, জামোজ, জমজ ২, জমজ 3, সেই রকম চা-খোর, আমী মুফিজ ইত্যাদি। মোশাররফ করিম তার ধারাবাহিক কৌতুক অনুষ্ঠানের জন্য ৮ বার মেরিল প্রথম আলোর পুরস্কার পেয়েছেন।

আরো পড়ুন:

প্রিয় পাঠক, আপনিও সম্ভব ডটকমের অনলাইনের অংশ হয়ে উঠুন। লাইফস্টাইল বিষয়ক ফ্যাশন, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, খাবার, বিস্ময়কর পৃথিবী, সচেতনমূলক লেখা, রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ ইনবক্স করুন- আমাদের ফেসবুকে  SOMVOB.COM লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে।