কেন মেয়েরা ছেলেদের সাথে প্রতারণা করে! জেনে নিন ১৮টি কারণ

407

অবান্তিকা হায়দার »

ব্রেকআপ এবং ডিভোর্সের বড় একটি কারণ হলো প্রতারণা। একজন বিশ্বস্ত, অপরজন প্রেম করে বেড়াচ্ছে তার অজান্তে- এই ঘটনাগুলো অকল্পনীয় ফাটল ধরায় সম্পর্কে। প্রতারণা বা চিটিং হলো সেটাই, যেটা আপনাদের সম্পর্কের সীমা লঙ্ঘন করে এবং বিশ্বস্ততা ভাঙ্গে। দুঃখের ব্যাপার হলো, আপনি যতটা ভাবছেন, তার চাইতেও অনেক বেশি দেখা যায় এই চিটিং।

মনোবিদরা ধারণা করছেন , মেয়েদের আত্মাভিমান ছেলেদের তুলনায় একটু বেশিই। মেয়েরা স্বভাবগতভাবে একটু অভিমানী হয়ে থাকেন। ফলে, কোনও সম্পর্কে যদি আত্মাভিমানে আঘাত লাগে, তা হলে তাঁরা সেই সম্পর্কে টিকে থাকতে চান না। তাই অনেক ক্ষেত্রে আত্মাভিমানে আঘাত লাগলে ‘প্রতিশোধ’ হিসেবে প্রতারণাকেই বেছে নেন।

সহজলভ্যতা

মনোবিদরা বলছেন, এই মুহূর্তে বাঙালি সমাজের সব থেকে বড় সমস্যাই হল সহজলভ্যতার ধারণা। অনেক কিছুর মতো সম্পর্কও এখন অনেক সহজলভ্য বলে মনে করেন অনেকেই। সামান্য চেষ্টাতেই যেন মিলে যায় সব সমস্যার সহজ সমাধান। এই মানসিকতা ঢুকে পড়েছে সম্পর্কের ক্ষেত্রেও। পার্টটাইম সম্পর্ক থেকে শুরু করে পরকীয়া, এ সমাজে সবই মেলে সহজে।

ইগো সমস্যা ও আত্মাভিমান

মনোবিদরা বলছেন, মহিলাদের ইগো-কোশেন্ট পুরুষদের তুলনায় একটু বেশিই। বাঙালি মহিলারা স্বভাবগতভাবে একটু অভিমানী হয়ে থাকেন। ফলে, কোন সম্পর্কে যদি ইগো-য় আঘাত লাগে, তা হলে তাঁরা সেই সম্পর্কে টিকে থাকতে চান না। এ সব ক্ষেত্রে মানিয়ে নেয়া বা সঙ্গীকে ক্ষমা করে দেয়ার ঘটনা ঘটে। কিন্তু সম্পর্ক ছাড়লেই প্রতারণা বা অনেক ক্ষেত্রে ইগোয় আঘাত লাগলে ‘প্রতিশোধ’ হিসেবে প্রতারণাকেই বেছে নেন মেয়েরা।

আরো পড়ুন: ছেলেদের যে ৭টি কারণে মেয়েরা কাঁদে!

আত্মবিশ্বাসহীন মানুষ

আমাদের সবারই এমন কিছু সময় আসে যখন আমরা নিজেদের ওপর আত্মবিশ্বাস হারিয়ে ফেলি। সেটা না। এখানে এমন সব মানুষের কথা বলা হচ্ছে, যাদের এই আত্মবিশ্বাসের অভাব খুবই প্রকট, এবং তারা মনে করে আপনি যদি তাদেরকে যথেষ্ট ভালোবাসা না দেন তারা সেটা অন্য কোথাও থেকে খুঁজে নেবে। এ ব্যাপারটা খুবই ভয়ংকর। কোনো কারণে দুজনের মাঝে দুরত্ব তৈরি হলেই চিটিং করার প্রবণতা বাড়তে দেখা যায় এসব মানুষের ক্ষেত্রে। এমন আচরণের মূলে থাকে ইগো।

স্বার্থপর মানুষ

স্বার্থপর মানুষের আসলে সেই বিবেকবোধ থাকে না যে তারা সম্পর্কে বিশ্বস্ততা বজায় রাখবে। তারা জানেন, প্রতারণা করলে কষ্ট পাবেন সঙ্গীটি। কিন্তু তারা এমনই স্বার্থপর যে এ ব্যাপারটাকে তোয়াক্কা করেন না।

আরও চাই

নদীর এ পার আর ওপারের ব্যাপারটা অনস্বীকার্য। অনেক সময় সঙ্গীর থেকে সঙ্গীর বন্ধু বা বস্ অনেক সময়ে বেশি আকর্ষণ করেন। ফলে প্রতারণার আশ্রয় নেয় মেয়েরা।

সম্পর্কে তিক্ততা

মনোবিদরা বলছেন, আজকাল বাঙালি সমাজে মানিয়ে নেওয়ার ব্যাপারটাই অনেক কমে গেছে। কারণ হিসেবে তাঁরা মূলত দাঁড় করাচ্ছেন ক্যারিয়ারের দৌড়কে। ক্যারিয়ারের ঝাকি সামলে সম্পর্কের সূক্ষ্ম দিকগুলির যত্ন নেওয়ার সময় কোথায়? এ ক্ষেত্রেও মহিলারা সম্পর্ক থেকে মুক্তি পেতে প্রতারণার রাস্তাই বেছে নিচ্ছেন।

পারিবারিক কারণ

মেয়েরা সাধারণত প্রেমের সম্পর্কটিতে অনেক বেশি ইতিবাচক হয়ে থাকেন। কিন্তু যতি তার পবিার থেকে খুব বাজে ধরনের চাপ আসে সেক্ষেত্রে মেয়েরা অনিচ্ছা সত্ত্বেও বাধ্য হয়ে থাকে ছেলেটির সাথে প্রতারণা করতে।

হবু শ্বাশুড়ি ও ননদের কারণে

অনেকেই ভালোবাসার মানুষটির পরিবারকে অনেক বেশি ভয় পেয়ে থাকেন। হবু শ্বাশুড়ি এবং ননদের আচরণে ভয় পেয়ে মেয়েরা চায় না ছেলেটিকে বিয়ে করতে। এ কারণেও মেয়েরা প্রেমের সম্পর্কটির সাথে প্রতারণা করে থাকেন।

সামাজিক মর্যাদার লোভ

অনেক নারী লোভী প্রকৃতির হয়ে থাকে। তারা প্রেম করে ঠিকই কিন্তু একটা পর্যায়ে গিয়ে চিন্তা করে যাকে সে ভালোবাসে তার ক্যারিয়ার তেমন ভালো কিছুই না। তাছাড়া তাকে বিয়ে করলে আর্থিক অভাবে পড়ার সম্ভাবনাও রয়েছে বলে ভাবেন। এ কারণে কিছুটা সামাজিক মর্যাদার লোভে তারা প্রেমের সম্পর্কটির সাথে প্রতারণা করে থাকেন।

নিরাপত্তার অভাব

অনেক সময় নারীরা যাকে ভালোবাসে তার কাছেই নিরাপত্তার অভাববোধ করে থাকেন। তারা ভাবেন বিয়ের আগেই তার অস্তিত্ব বিলীন তাহলে বিয়ের পরে কি হবে। এই নিরাপত্তার অভাবেও নারীরা প্রেমের সম্পর্কটির সাথে প্রতারণা করে থাকেন।

আরো পড়ুন: এক প্যাকেট কনডমের দাম ৬৪,০০০ টাকা!

বিশ্বাস উঠে যাওয়া

নারীরা অনেক বেশি সংবেদনশীল প্রকৃতির হয়ে থাকেন। প্রেমিক পুরুষরা হাজার দোষ করলেও নারীরা তা ক্ষমার দৃষ্টিতে দেখে থাকেন। কোনো কারণে বিশ্বাস হারিয়ে ফেললেও আবার বিশ্বাস করার চেষ্টা করেন। ফলে দূরে সরে জান সম্পর্কটি থেকে।

প্রেমিকের চরিত্রগত সমস্যা

প্রেমিক পুরুষটি যদি চরিত্রগত দিক থেকে ভালো না হয় অর্থাৎ দুশ্চরিত্রের অধিকারী হয় তাহলেও নারীরা প্রতারণা করে থাকেন। কেননা তাদের আর কোনো উপায় থাকে না।

প্রেমিকের সময় না দেয়া

অনেক ছেলেই আছেন যারা প্রেমের সম্পর্কটি টিকিয়ে রাখছেন ঠিকই কিন্তু মেয়ে বন্ধুটিকে সময় দিতে পারছেন না একেবারেই। নারীরা সাধারণত তার প্রেমিকের কাছ থেকে একটু বেশি সময় আশা করে থাকেন। কিন্তু হয়ত ব্যস্ততার কারণে ছেলেরা এই সময়টুকু দিতে পারেন না। কিন্তু আবেগী নারীরা এসব ক্ষেত্রে ছেলেদের সাথে প্রতারণা করে থাকে। পুরাতন প্রেমিককে ছেড়ে যে ছেলে বেশি সময় দিতে পারে তার কাছে চলে যায়।

আরো পড়ুন: দুবাইয়ের ১০টি অবিশ্বাস্য ও বিলাসবহুল দর্শনীয় স্থান!

ক্যারিয়ার

অনেক মেয়েই অনেক বেশি ক্যারিয়ার সচেতন হয়ে থাকেন। ক্যারিয়ারে ভালো অবস্থানে যাওয়ার জন্য তারা পুরোনো প্রেমের সম্পর্কে প্রতারণা করে থাকেন কেননা তারা মনে করেন যে এটি তাদের উন্নতির পথের সবচেয়ে বড় বাঁধা। তাই অনেকটা স্বার্থপরের মতই প্রতারণা করে থাকেন।

বন্ধুদের কথা বলা

অনেক বন্ধুরা মেয়েদেরকে তাদের প্রেমিকের নানা বাজে কথা বলে পঁচিয়ে থাকেন। আবার অনেক নারীই আছেন যারা বন্ধুদের কথাকে অনেক বেশি গুরুত্ব সহকারে নিয়ে থাকেন। এ কারণে বন্ধুদের অপছন্দকে তারা মূল্য দিয়ে থাকেন। এছাড়া নানা ধরনের খোঁচানো কথায় তারা অতিষ্ঠ হয়েই প্রেমিক পুরুষটির সাথে প্রতারণা করেন।

যৌন স্বাদে ভিন্নতা

আধুনিক যুগের পুরুষদের মত নারীরাও অনেক বেশি আধুনিক হয়ে গেছে। পুরুষরা যেমন বিভিন্ন যৌন স্বাদ পেতে ভালোবাসেন তেমনি এমন অনেক নারী আছেন যারা বিভিন্ন পুরুষের সাথে যৌন স্বাদ গ্রহণ করতে চান। এরা এক পুরুষের মাঝে সকল সুখ খুঁজে পায় না। এ কারণেও এই নারীরা প্রেমের সম্পর্কে প্রতারণা করে থাকে।

আরো পড়ুন: লজ্জা নয় জানতে হবে; বেশিক্ষন বীর্য ধরে রাখার বিশেষ টিপস

একঘেঁয়েমি

একটি সম্পর্ক অনেকদিন ধরে স্থায়ী হলে একজন পুরুষ যেমন বিরক্ত হয়ে পড়েন তেমনি একজন নারীও বিরক্ত হয়ে পড়েন। সম্পর্কটিতে এক ধরনের একঘেঁয়েমিতা চলে আসে। এই একঘেঁয়েমিতা দূর করতে নারীরা প্রেমিক পুরুষটির সাথে প্রতারণা করে থাকেন।

খারাপ প্রবণতা

কতগুলো পুরুষ যেমন খারাপ প্রবণতা থেকে প্রেম করে তেমনি কিছু নারীও আছে যারা ঐ একই খারাপ উদ্দেশ্যে প্রেম করে থাকে। অর্থাৎ এই মেয়েগুলো খারাপ প্রকৃতির হয়ে থাকে, এরা বহুপুরুষগামী হয়ে থাকে। এ কারণে কোনো একজন পুরুষ এদের জীবনে স্থায়ী হয় না। ফলে তারা প্রেমের সম্পর্কটির সাথে খুব সহজেই প্রতারণা করে থাকেন।

প্রিয় পাঠক, আপনিও সম্ভব ডটকমের অনলাইনের অংশ হয়ে উঠুন। লাইফস্টাইলবিষয়ক ফ্যাশন, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, নারী, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, এখন আমি কী করব, খাবার, রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ ইনবক্স করুন- আমাদের ফেসবুকে প্রতিদিনের স্বাস্থ্য টিপস লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে।