পৃথিবীর সুন্দর দৃশ্য: বিস্ময়কর ২০টি দ্বীপ

74
পৃথিবীর সুন্দর দৃশ্য
পৃথিবীর সুন্দর দৃশ্য

নিত্যদিনের কর্মব্যস্ত সময় থেকে অবসর নেওয়ার জন্য মানুষ সবসময়ই শান্তির খোঁজে পৃথিবীর সুন্দর দৃশ্য খুজে থাকেন। ভ্রমণ দিতে পারে সেই শান্তি। যারা ভ্রমণ পিপাসু তারা অবশ্যই সমুদ্র ভালবাসেন। আর সমুদ্র ভালবাসলে আপনার পছন্দের সুন্দর দৃশ্য দ্বীপ শহর হবেই।

বিশ্বে অসংখ্য সুন্দর সুন্দর দ্বীপ রয়েছে। এসব দ্বীপের মধ্যে সেরা নির্ণয় করা অত্যন্ত কঠিন। কিন্তু পর্যটকদের পছন্দ ও মতামতের ভিত্তিতে একটা মান নির্ণয় করা যায়। আর সেরা হওয়ার অন্যতম কারণ হল এখানকার জীববৈচিত্র্য।

আরো পড়ুন: বিশ্বের সবচেয়ে দামি ১০টি ঘড়ি! কিনতে কোটি টাকা লাগে 😱

পৃথিবীর সেরা ২০টি সুন্দর দৃশ্য

পৃথিবীর সুন্দর দৃশ্য
পৃথিবীর সুন্দর দৃশ্য

আমরা পর্যটকদের মতে পৃথিবীর সেরা দ্বীপের তালিকা সংগ্রহ করেছি এবং তা আপনাদের সাথে শেয়ার করছি পৃথিবীর সুন্দরতম দ্বীপসমূহ নিয়ে।

আপনিও এখানকার একটিতে ভ্রমণে যেতে পারেন এবং প্রকৃতির খুব কাছে গিয়ে মনোমুগ্ধকর দৃশ্য উপভোগ করতে পারেন পৃথিবীর সুন্দর দৃশ্য দ্বীপ।

আমাদের বসবাসরত এই পৃথিবীতে চোখ ধাদানোর মতো হাজারো জায়গা রয়েছে যা আমরা দেখেই মুগ্ধ হই। তাদের মধ্যে পাহাড়-পর্বত, সমুদ্র-সৈকত, বন-জঙ্গল, দ্বীপ অন্যতম।

আর এই সব কিছুর সৌন্দর্য এর সমাহার দেখা যায় দ্বীপ এ গেলে। দ্বীপ নামটি মাথায় আসলেই আমাদের চোখের সামনে পৃথিবীর সুন্দর দৃশ্য মনোরম কিছু দৃশ্য চলে আসে। আর কোথাও ভ্রমন এর জন্য হলে তো দ্বীপ শীর্ষে।

পৃথিবীর আনাচে কানাচে মুগ্ধ করে দেয়ার মতো হাজারো পৃথিবীর সুন্দর দ্বীপ রয়েছে। যাদের প্রত্যেকটির সৌন্দর্য এক কথায় বলেও কখনো শেষ করা যাবে না।

আর এরকমই সৌন্দর্যের চুড়ায় দাড়িয়ে আছে এমন পৃথিবীর সুন্দর দ্বীপ গালাপাগোস দ্বীপ, সিসিলি, ফিজি, আইসল্যান্ড, মালদ্বীপ, বালি, সান্তরিনি, কিউবা, মুরিয়া, পালাওয়ান, বোরা বোরা ইত্যাদি।

আরো পড়ুন: ১০৬টি বিস্ময়কর তথ্য যা আপনাকে অবাক করতে বাধ্য করবেই! 😱

আর এদের মধ্যে কোনটি অধিক সুন্দর তা বলা খুবই কঠিন। এক এক দ্বীপের সৌন্দর্য এক এক রকম। তারা যে যার সৌন্দর্য নিয়েই শীর্ষে।

আজ আমরা এইসকল দ্বীপ সম্পর্কে জানব-

পৃথিবীর সুন্দর দৃশ্য ১ম মালদ্বীপ

মালদ্বীপ
মালদ্বীপ

তালিকায় শীর্ষস্থান দখল করেছে মালদ্বীপ। এশিয়া মহাদেশের সবচেয়ে ছোট দেশ। ভারত মহাসাগরের বুকে ছোট ছোট ১২০০ প্রবালদ্বীপ নিয়ে দাঁড়িয়ে আছে দেশটি। প্রতিবছর পৃথিবীর নানা প্রান্ত থেকে কয়েক হাজার পর্যটক এখানে ছুটে আসেন।

স্বচ্ছ জলরাশি, সাদা বালির সৈকত, আকাশ ও সমুদ্রের অসম্ভব সুন্দর নীল রং মাতিয়ে রাখে পর্যটকদের। ছুটি কাটানো ও রোমান্টিক মুহূর্ত পার করার আদর্শ জায়গা।

গ্রিক আইল্যান্ড

গ্রিক আইল্যান্ড
গ্রিক আইল্যান্ড

এজিয়ান সাগরে অবস্থিত গ্রিক দ্বীপগুলো ভ্রমণ-পিপাসুদের পছন্দের তালিকায় দ্বিতীয় হয়েছে। চমৎকার আবহাওয়া, গ্রিক আতিথেয়তা, উপকূলবর্তী ছবির মতো সুন্দর গ্রাম এবং উন্নত অভ্যন্তরীণ যোগাযোগ ব্যবস্থার কারণে এসব দ্বীপ বিদেশি পর্যটকদের দারুণভাবে টানে।

আরো পড়ুন: ভূমিকম্পের আগে পরে করণীয় ও ১২টি বিস্ময়কর তথ্য

বিভিন্ন স্থানে প্রাচীন ইউরোপীয় সভ্যতার নিদর্শনসমূহ সাজিয়ে রাখা হয়েছে চমৎকারভাবে। যা সমৃদ্ধ গ্রিক সভ্যতা সম্পর্কে পর্যটকদের কৌতুহল মেটায়।

সিসিলি পৃথিবীর সুন্দর দৃশ্য

সিসিলি
সিসিলি

ইটালির অন্তর্ভুক্ত ভূ-মধ্যসাগরের সবচেয়ে বড় দ্বীপ সিসিলি। নীলাভ জলরাশি, নরম বালুর সৈকত ও দ্বীপের মনোরম পরিবেশ পৃথিবী বিখ্যাত। দ্বীপের অন্যতম আকর্ষণ হলো আগ্নেয়গিরি মাউন্ট এটনা।

ভূ-পৃষ্ঠ থেকে ৩ হাজার ৩৫০ মিটার উঁচুতে অবস্থিত এই আগ্নেয়গিরিটি ইউরোপে সর্বোচ্চ। মাউন্ট এটনা পৃথিবীর সক্রিয় আগ্নেয়গিরিগুলোর একটি। পর্যটকদের পছন্দের তালিকায় এটি রয়েছে তৃতীয় স্থানে।

সেন্ট বার্থ আইল্যান্ড

 সেন্ট বার্থ আইল্যান্ড
সেন্ট বার্থ আইল্যান্ড

পুরো নাম সেন্ট বার্থেলেমি আইল্যান্ড। সংক্ষেপে সেন্ট বার্থ। ক্যারিবিয়ান অঞ্চলের সবচেয়ে ব্যযবহুল ও অভিজাত দ্বীপটি এক সময় ফ্রান্সের দখলে ছিলো।

দ্বীপটির নাম ‘বার্থেলেমি’ ও ফরাসি। বিখ্যাত ও বিত্তবানদের শ্যাম্পেন পানের আসর হিসেবেই এটির খ্যাতি। দ্বীপের নির্জন সাদা বালির সৈকত ও ফিনফিনে বাতাস পর্যকটকদের মনে আনে প্রশান্তি।

বেল্যারিক আইল্যান্ডস

বেল্যারিক আইল্যান্ডস
বেল্যারিক আইল্যান্ডস

ইবিজা, মেজরকা, মেনরকা এবং ফরমেন্তেরা। পশ্চিম ভূ-মধ্যসাগরের এই ৪টি দ্বীপ নিয়ে স্পেনের বেল্যারিক দ্বীপমালা। প্রতিটি দ্বীপের রয়েছে স্বতন্ত্র্য বৈশিষ্ট্য। উদ্দাম নাইট ক্লাবের জন্য ইবিজা বিখ্যাত।

আরো পড়ুন: বিশ্বের সবছেয়ে সেরা ডায়নামিক ১০টি কার

শান্ত পরিবেশ ও গোপনীয়তার জন্যও এই দ্বীপের কদর রয়েছে। রূপালি পর্দার তারকাজুটিদের গোপন অভিসারের আদর্শ জায়গা এটি। নয়নাভিরাম সৈকত, সবুজের সমাহার ও প্রাকৃতিক সৌন্দর্যগুণে অন্য ৩টি দ্বীপও অনন্য।

সিশ্যালস পৃথিবীর সুন্দর দৃশ্য

সিশ্যালস
সিশ্যালস

আফ্রিকা মহাদেশের দক্ষিণ-পূর্বে অবস্থিত ১৫৫টি দ্বীপ নিয়ে গঠিত দ্বীপরাষ্ট্র সিশ্যালস। ভারত মহাসাগরের এই দ্বীপমালায় কিছু কিছু জায়গায় এখনও মানুষের পা পরেনি। সিশ্যালস ভ্রমণ মানেই নিঃশ্বাস বন্ধ হওয়ার মতো প্রাকৃতিক সৌন্দর্য উপভোগের সুযোগ।

এখানে সৈকতের পাশে রয়েছে সুউচ্চ প্রাচীন নারকেল ও পাম গাছের সারি। অবাক করার মতো তথ্য হলো, মাত্র ১৭৭ বর্গমাইলের এই ভূ-খণ্ডেও ইউনেস্কো স্বীকৃত ২টি ওয়ার্লড হেরিটেজ সাইট রয়েছে।

ক্যাপ্রি

ক্যাপ্রি
ক্যাপ্রি

প্রাচুর্যময় পরিবেশ আর হালকা জলবায়ুর অসাধারণ একটি দ্বীপ ক্যাপ্রি। এটি ইতালির নাপোলি শহরের দক্ষিণে অবস্থিত। পৃথিবীর নামকরা সব লেখক, শিল্পী, বুদ্ধিজীবী এই দ্বীপের নিসর্গে মজেছেন।

তাদের বর্ণনায় দ্বীপের সৌন্দর্য এমনভাবে ফুটে উঠেছে, যারা কখনো দেখেননি, তারাও কল্পনায় দ্বীপের সৌন্দর্য উপলব্ধি করতে পারবেন।

বার্বাডোজ

বার্বাডোজ
বার্বাডোজ

ঘন ক্রান্তীয় সবুজ গাছপালা, উষ্ণ নীল জল এবং সোনলী রোদ্দুর- সবকিছু মিলে বার্বাডোসের সাদা বালুকাময় সৈকতে আপনি যতদিন খুশি কাটাতে পারেন; বিরক্তি আসবে না। ঘুরতে ঘুরতে খেয়ে দেখতে পারেন এখানকার সুস্বাদু উড়ন্ত মাছ।

হারিয়ে যেতে পারেন ভিড়ের মাঝে। আসলে হারাবেন না। সারতে পারেন কেনাকাটা। নানা রকম পানীয়তে গলা ভেজানোর জন্য রয়েছে বার। আর আপনার মন ভেজানোর জন্য রয়েছে পুরো দ্বীপের নৈসর্গিক রূপ।

মরিশাস পৃথিবীর সুন্দর দৃশ্য

মরিশাস
মরিশাস

পরিবার নিয়ে ভ্রমণের জন্য মরিশাসের মতো দ্বীপ আর হয় না। হানিমুন স্পট হিসেবেও যুগলদের কাছে এটি চরম আকর্ষণীয়।

পর্যটক আকষর্ণের যাবতীয় আয়োজন সেরে রেখেছে আফ্রিকার এই দ্বীপ দেশ। শান্ত সমুদ্র, নিরাপদ সৈকত, আকর্ষণীয় মোটেল, অবারিত সবুজ- কী নেই মরিশাসে।

শান্ত আবহাওয়ার জন্য বছরজুড়েই থাকে পর্যটকদের আনাগোনা।

মাল্টা

মাল্টা
মাল্টা

আরামদায়ক জলবায়ু, অসংখ্য বিনোদন স্পট, আর দ্বীপজুড়ে থাকা অসাধারণ স্থাপত্যশৈলীতে নির্মিত মনুমেন্টের জন্য মাল্টা জনপ্রিয় পর্যটক গন্তব্য। মনুমেন্টগুলো ঐতিহাসিকভাবেও গুরুত্বপূর্ণ।

দ্বীপটিতে কেবল ইউনেস্কোর স্বীকৃতিপ্রাপ্ত ঐতিহাসিক স্থাপনাই আছে কমপক্ষে ৯টি। দ্বীপের রাজধানী ভেলেট্টা ইউরোপিয়ান ইউনিয়নভুক্ত দেশগুলোর মধ্যে সবচাইতে ছোট। এছাড়া হরেক রকমের বাগান ও চার্চের জন্যও এটি বিখ্যাত পৃথিবীর সুন্দর দৃশ্য।

বালি দ্বীপ

বালি দ্বীপ
বালি দ্বীপ

বালি দ্বীপ জনপ্রিয়তায় গালাপাগোসের ঠিক পরেই, মানে দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে ইন্দোনেশিয়ার বালি দ্বীপটি। অস্ট্রেলিয়ান ও ব্রিটিশ পর্যটকদের কাছে অন্যতম সেরা গন্তব্য। তবে, ছুটি কাটাতে বহু দেশ থেকেই সারা বছর প্রচুর পর্যটক আসেন এখানে। রয়েছে হিন্দু মন্দিরও।

আরো পড়ুন: এক প্যাকেট কনডমের দাম ৬৪,০০০ টাকা!

গুয়াডেলোপ

এখানে রয়েছে অনেক দ্বীপপুঞ্জ। এই দ্বীপপুঞ্জটি অনেক রোমান্টিক। কেউ যদি ভালোবাসার মানুষটিকে নিয়ে কোথাও ঘুরে আসতে চান তাহলে অবশ্যই গুয়াডেলোপে যাবেন।

এখানকার প্রাকৃতিক বাতাস আপনাকে কওে তুলবে অনেক বেশি আবেদনময়ী। ফলে পাশে থাকা প্রিয় মানুষটিকে নিয়ে গুয়াডেলোপের সৌন্দর্যকে অবলোকন করতে আজই যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিতে পারেন।

প্রিয় পাঠক, আপনিও সম্ভব ডটকমের অনলাইনের অংশ হয়ে উঠুন। লাইফস্টাইলবিষয়ক ফ্যাশন, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, নারী, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, এখন আমি কী করব, খাবার, রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ ইনবক্স করুন- আমাদের ফেসবুকে  SOMVOB.COM লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে।