More

    This Website Under Constraction

    ডিমের উপকারিতা

    ১৪ই অক্টোবর বিশ্ব ডিম দিবস। ডিম একটি পুষ্টিকর খাদ্য। আজকাল অনেকেই ডিম খান না। কেউ ওজন বেড়ে যাওয়ার ভয়ে, কেউ আবার রক্তে চর্বির পরিমাণ কম রাখতে, কেউ আবার হৃদরোগকে ভয় পেয়ে। কিন্তু আসলেই কি ডিম এগুলো বাড়ায়? বরং চিকিৎসকেরা আজকাল বলেন উল্টো কথা। তারা বলেন, সকালে নাস্তায় একটি ডিম মাসে প্রায় ৩ পাউনড পর্যন্ত ওজন কমাতে পারে! আসুন, তাহলে জেনে নেয়া যাক ডিমের ১২টি উপকারিতা, যেগুলোর কারণে রোজ ডিম খাওয়া উচিত আপনার!

    এনার্জির জন্য

    শারীরিক শক্তির জন্য যে সকল খাদ্য বেশি জরুরী

    কাজ করার জন্য তো আমাদের এনার্জির দরকার হয়ই। ডিম খেলে আমরা সহজেই এই এনার্জি পেতে পারি। ডিমে থাকা ভিটামিন থেকেই মূলত আমরা এই এনার্জি বা শক্তি পেয়ে থাকি। ডিমে থাকা ভিটামিন বি আমাদের খাওয়া খাদ্যকে এনার্জি বা শক্তিতে রূপান্তরিত করে।তাই প্রতিদিন সকালে ডিমসেদ্ধ খেলে আপনি সারাদিন এনার্জেটিক থাকবেন।

    চোখের সমস্যা সমাধানে

    ডিমে থাকে ভিটামিন এ, যা আমাদের চোখের জন্য বেশ ভালো।আমাদের দৃষ্টিশক্তিকে উন্নত করে ভিটামিন এ।তাছাড়া ডিমে থাকা কেরোটিনয়েড আর ল্যুটেন বয়স হয়ে গেলে চোখের এক বড় সমস্যা,ম্যাকুলার ডিজেনারেশন হওয়ার সম্ভাবনা কমায়।ছানিও কম হওয়ার দিকে থাকে।

    ক্যানসার প্রতিরোধে

    ক্যানসার তো এখন প্রায় মহামারী হয়ে গেছে।ঘরে ঘরেই প্রায় এই রোগ।আর এই রোগের চিকিৎসাও এত ব্যয়বহুল যে তা অনেকের সাধ্যের বাইরে।তাই খুব ভালো হয় না যদি ডিম খেয়েই আমরা এই সম্ভাবনা কমাতে পারি!ডিমে থাকা ভিটামিন ই আমাদের কোষে আর ত্বকে থাকা ফ্রি র‍্যাডিকেল ধ্বংস করে দেয়।তাই ক্যানসার কম হয়।এছাড়াও নতুন কোষ তৈরি হতেও সাহায্য করে থাকে।অ্যাডোলেশন পিরিয়ডে নিয়মিত ডিম খেলে,যেমন সপ্তাহে ৬টি করে,তাহলে ব্রেস্ট ক্যানসার হওয়ার সম্ভাবনা অনেক কমে যায়।

    পেশীর ব্যথা কমাতে

    আজকাল শুধু বয়স হলেই নয়,কম বয়সেই অনেকের পেশীতে ব্যথা হতে থাকে।পেশীর জন্য খুব উপকারী ভিটামিন ডি,যা খুব বেশী পরিমাণে ডিমে পাই আমরা।তাই ডিম খেলে আমাদের পেশী মজবুত হয়।নিয়মিত ব্যায়াম করলে তাই ডিম খেতে বলা হয়।

    ভালো চর্বি

    সেদ্ধ ডিমে শরীরের জন্য উপকারী মনোআনস্যাচুরেটেড ও পলিআনস্যাচুরেটেড চর্বি আছে। এগুলো স্যাচুরেটেড ফ্যাটকে সরিয়ে দিয়ে তার স্থান দখল করে এবং রক্তের কোলেস্টেরলের পরিমাণ কমিয়ে ফেলে। ফলে হৃত্‍পিণ্ডের স্বাস্থ্য ভালো থাকে। হার্টের জন্য উপকারী এই চর্বি গুলো ইন্সুলিনও নিয়ন্ত্রণ করে এবং রক্তের চিনির পরিমাণ নিয়ন্ত্রণে রাখে। বিশেষ করে টাইপ-২ ডায়বেটিসের জন্য এধরণের ফ্যাটগুলো খুবই উপকারী।সেদ্ধ ডিমের দুই তৃতীয়াংশই এ ধরণের উপকারী ফ্যাট দিয়ে গঠিত।

    আরো পড়ুন: কাচাঁ হলুদের উপকারিতা ও ৫০টি স্বাস্থ্যগুণ!

    চোখের স্বাস্থ্য

    ডিমের একটি প্রধান খাদ্য উপাদান হলো ভিটামিন এ। ভিটামিন এ রেটিনায় আলো শুষে নিতে সহায়তা করে, কর্নিয়ার পাশের মেমব্রেনকে রক্ষা করে এবং রাতকানার ঝুঁকি কমায়। প্রতিদিন সকালে একটি সেদ্ধ ডিম খেলে খাবার তালিকায় ৭৫ মাইক্রোগ্রাম ভিটামিন এ যুক্ত হয়।

    মেয়েদের শরীরের জন্য

    জানেন কি,একজন মেয়ের শরীরের জন্য প্রতিদিন ৫০%-৬০% প্রোটিন দরকার হয়, যেটা ডিম থেকেই পাওয়া যায়? ডিমে থাকে ৮০-৮৫ ক্যালোরি যা ৬.৫ গ্রাম প্রোটিনের সমান। তাই সুস্থ থাকতে মেয়েদের রোজ ডিম খাওয়া প্রয়োজন।

    স্তনের ক্যানসার রোধ করে

    সম্ভব ডকটম
    প্রতিকী ছবি

    গবেষণার পরামর্শ অনুযায়ী বলা হয়েছে যে প্রতি সপ্তাহে ৬ টি করে ডিম খেলে স্তনে ক্যানসার হওয়ার সম্ভবনা ৪০% কমে যায়।

    হৃদয়ের সুরক্ষায়

    হার্টই তো আমাদের সব।তাই একে সুস্থ তো রাখতেই হবে।এক সমীক্ষায় জানা গেছে যে ডিম হার্টে রক্ত জমাট বাঁধতে দেয় না।তাই হার্ট অ্যাটাক বা স্ট্রোক কম হয় নিয়মিত ডিম খেলে।এর পাশাপাশি সারা শরীরেই রক্ত চলাচল সচল আর স্বাভাবিক রাখে।

    কোলেস্টেরলের জন্য

    সম্ভব ডটকম

    আজকাল কোলেস্টেরল নিয়ে আমাদের চিন্তার অন্ত নেই।আমরা সবসময় ভাবি কোলেস্টেরল কিভাবে নিয়ন্ত্রণে রাখব।অনেকে আবার বলেন ডিম নাকি কোলেস্টেরল বাড়ায়।একদমই না।বরং ডিম কোলেস্টেরল নিয়ন্ত্রণে রাখতে সাহায্য করে।ডিমে থাকা ওমেগা ৩ এই কাজটি করতে সাহায্য করে।আবার ডিম এইচ.ডি.এল বা ভালো কোলেস্টেরলের মাত্রা বাড়ায় প্রায় ১০%।

    লিপিড প্রোফাইল ঠিক রাখতে

    ডিম লিপিড প্রোফাইলও নিয়ন্ত্রণে রাখে। কোনো বাজে প্রভাব ফেলে না। আর তাছাড়া ডিম লোহিত রক্তকণিকা বাড়াতেও সাহায্য করে।তাই রোজ নিয়ম করে ডিম খান।

    আরো পড়ুন: এমন ২০টি খাবার, যা আপনার যৌনশক্তিকে দ্বিগুণ করবে!

    কোলাইনের উৎস

    আমাদের শরীরের সার্বিক সুস্থতায় কোলাইন আমাদের খুবই প্রয়োজন।কোলাইনের ঘাটতি হলে লিভারের নানান সমস্যা বা নিউরোলজিক্যাল ডিসঅর্ডার হয়ে থাকে।ডিমে প্রায় ৩০০-৩৫০ মাইক্রোগ্রাম কোলাইন থাকে।তাই ডিম খেলে লিভার,স্নায়ু,যকৃৎ সব ভালো থাকে।

    অ্যামিনো অ্যাসিডের উৎস

    আমাদের শরীরের জন্য প্রোটিন যে খুব দরকারী তা তো আমরা জানিই।কিন্তু এটা কি জানেন যে এই প্রোটিনের মূল উৎস কি?সেটা হল অ্যামিনো অ্যাসিড।প্রোটিন তৈরিতে প্রায় একুশ ধরণের অ্যামাইনো অ্যাসিড লাগে।যার মধ্যে নয়টি শরীরে তৈরি হতে পারে না।এর জন্য বাইরে থেকে প্রোটিনের যোগান লাগে।সেই যোগান দেয় ডিম।তাই ডিম কত উপকারী বুঝতেই পারছেন।

    নখ মজবুত করতে

    নখ মজবুত করতে

    অনেকের কমন সমস্যা হল নখ ভেঙ্গে যাওয়া।নখ নানা কারণেই ভেঙ্গে যেতে পারে।একটি বড় কারণ তো যত্ন না করা।কিন্তু ভেতর থেকেও একটা জিনিসের খামতি থাকলে নখ দুর্বল হয়ে ভেঙ্গে যেতে পারে।সেই উপাদান হল সালফার।নখের জন্য সালফার খুবই গুরুত্বপূর্ণ।আর ডিম হল এই সালফারের উৎস।আর শুধু মজবুত নয়,নখকে সুন্দর,সাদাও রাখে সালফার।তাই নিশ্চিন্তে ডিম খান।

    অ্যানিমিয়া আটকায়

    অনেকেই অ্যানিমিয়া বা রক্তাল্পতায় ভোগেন।মেয়েদের তো শরীর থেকে রক্ত বেরিয়ে যায় বলে তারা অ্যানিমিয়া আক্রান্ত হয়ে থাকেন।আয়রন এই অ্যানিমিয়া হতে দেয় না।আর ডিমে আছে আয়রন।তাছাড়া পিরিয়ডের সময় রক্ত বেরিয়ে যাওয়ার জন্য মেয়েরা ক্লান্তিতে ভোগে।ডিম খেলে সেই ক্লান্তিও আসে না।

    আরো পড়ুন: যৌনমিলন কোন বয়সে হওয়া খুব বেশি জরুরী?

    রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়

    সামনেই শীত আসছে।এই সময়েই আপনি বুঝবেন আপনার মধ্যে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কত কম বা বেশি।ঘন ঘন সর্দি-কাশি বা জ্বরে যদি ভুগতে না চান, তাহলে রোজ ডিম খান।ডিমে থাকা জিঙ্ক ইমিউনিটি সিস্টেমকে অনেকটাই শক্তিশালী করে।

    হাড় ও দাঁত মজবুত করতে

    আজকাল কম বয়সেই আমাদের বাতের সমস্যা হয়।এর মূল কারণ হাড় শক্তিশালী না হওয়া বা ক্ষয়ে যাওয়া।হাড় মজবুত করতে একান্ত দরকার ফসফরাস। ফসফরাস আবার দাঁত ও মজবুত করতে সাহায্য করে।তাই অনেকদিন পর্যন্ত হাড়ের মজবুতি ধরে রাখতে আর বিন্দাস মাংসের হাড় চিবোতে চাইলে রোজ ডিম খান।

    ওজন নিয়ন্ত্রণ করতে

    ওজন নিয়ন্ত্রণ করতে

    ওজন অনেকসময় বেড়ে যায় আমাদের অতিরিক্ত খাওয়ার ফলে।আর আমরা অতিরিক্ত খেয়ে ফেলি অতিরিক্ত ক্ষিদে পেয়ে যায় বলে।ডিম আসলে এই অতিরিক্ত ক্ষিদেই হতে দেয় না।একটি ডিম শরীর থেকে ৪০০ ক্যালোরি মতো কমাতে পারে।তাই ওজন কমাতে ডিম খান।

    এইবার আপনারা জেনে গেলেন যে ডিম খেলে আপনার শরীর কোন কোন দিক থেকে উপকার পেতে পারে।এবার তাহলে জমিয়ে কুসুম আর সাদা অংশের বাছ-বিচার না করে ডিম খেয়ে যান আর সুস্থ থাকুন।

    আরো পড়ুন: স্ত্রী ব্রা খুললেই স্বামী হওয়া যায় না!


    [ প্রিয় পাঠক, আপনিও সম্ভব ডটকমের অনলাইনের অংশ হয়ে উঠুন। লাইফস্টাইলবিষয়ক ফ্যাশন, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, নারী, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, এখন আমি কী করব, খাবার, রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ ইনবক্স করুন- আমাদের ফেসবুকে প্রতিদিনের স্বাস্থ্য টিপস লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে। ]


    Recent Articles

    Hands on: Beats PowerBeats Pro review

    In May, Uber launched a new experiment: selling train and bus tickets through its app for its customers in Denver, Colorado. Today, the company...

    New standalone app for macOS to be Like iTunes

    In May, Uber launched a new experiment: selling train and bus tickets through its app for its customers in Denver, Colorado. Today, the company...

    NASA spacecraft to collide a small moonlet in 2022

    In May, Uber launched a new experiment: selling train and bus tickets through its app for its customers in Denver, Colorado. Today, the company...

    The Google Nest Hub Max soups up the smart display

    In May, Uber launched a new experiment: selling train and bus tickets through its app for its customers in Denver, Colorado. Today, the company...

    Foldable iPhone 2020 release date rumours & patents

    In May, Uber launched a new experiment: selling train and bus tickets through its app for its customers in Denver, Colorado. Today, the company...

    Related Stories

    Leave A Reply

    Please enter your comment!
    Please enter your name here

    Stay on op - Ge the daily news in your inbox