গুগল সার্চের কিছু অবাক করা কান্ড! দেখে নিন ১৬টি ‘ইস্টার এগ’

548
google easter eggs

পৃথিবীর সবচেয়ে জনপ্রিয় সার্চ ইঞ্জিন যে গুগল সেটি নতুন করে বলার কিছু নেই। প্রতি সেকেন্ডে বিশ্বজুড়ে মানুষ চল্লিশ হাজারেরও বেশি বার গুগলে সার্চ করে; প্রতিদিন সাড়ে তিনশো কোটি বার!

তাই বলে শুধু কাজের তথ্য খোঁজার জন্যই গুগলে যেতে হবে তা কিন্তু নয়। গুগলের প্রোগ্রামাররা বেশ মজার কিছু কিওয়ার্ড তৈরি করেছেন, যেগুলো লিখে সার্চ করলে নানারকম মজার ব্যাপার ঘটবে! সেগুলোকে ‘ইস্টার এগ’ বলা হয়। চলুন দেখে নেওয়া যাক এমন বেশ কয়েকটি মজার ইস্টার এগ

pac man

এই গেমসটি আমরা অনেকে জাভা মোবাইলে খেলছি। কিন্তু এখন আরো নতুন ফিচার নিয়ে সরাসরি গুগলের সার্চ ইন্জিনে রয়েছে। তার জন্য আপনাকে শুধুমাত্র pac man লিখে সার্চ করলে সরাসরি এই গেমসটি খেলতে পারবেন।

Number in letters

আমরা সচারচর ৫,০০০ কিংবা ১০,০০০ এই অংকগুলো সহজে বলে দিতে পারি। কিন্তু যখন একসাথে ৫৫৫,২২১,৭৭৭ তাহলে এখানে কত হয়েছে বলেন? পারলেন না তো!! কোন সমস্যা নাই, এখন শুধুমাত্র গুগলে গিয়ে আপনার কাঙ্খিত হিসাবটা বসান তারপর = সমান চিহ্ন দিয়ে, একসাথেই english লিখতে হবে।

উদাহরণ: 331,433,656=english উপরের চিত্রটি লক্ষ্য করুন।

MentalPlex

গুগল কিন্তু শুধু একটি সার্চ ইঞ্জিনই নয়, একরকম দার্শনিকও বটে! মনে করেন আপনি একটি টপিকস সার্চ করেছেন কিন্তু মনমতো ফলাফল খুঁজে পাচ্ছো না। এই লিঙ্কে ঢুকলে একটি বৃত্ত দেখতে পাবে, সেটি ঘুরে চলেছে সম্মোহনী আকর্ষণে।

গুগলের মতে, এই বৃত্তটি বিশেষ এলগরিদম দিয়ে তৈরি, এর দিকে একদৃষ্টিতে তাকিয়ে থাকলে তুমি খুব দ্রুতই কাঙ্ক্ষিত ফলাফল পেয়ে যাবে মনের ভেতর! তাই আর দেরি না করে ঘুরে আসো লিঙ্কটি থেকে। https://archive.google.com/mentalplex/

(এটি আসলে গুগলের একটি মজার ব্যাপার। বাস্তবে বৃত্তটির দিকে তাকিয়ে থেকে বোকা বনা ছাড়া আর কিছু হবে না!

Spinner wheel

ফিজেট স্পিনার হল এমন এক খেলনা যা স্ট্রেস বা চাপ কমাতে এবং মনোযোগ বাড়াতে সাহায্য করে।  খেলনাটি কে এমনভাবে মার্কেটিং করা হয়েছে যে, এটি মানসিক চাপে পর্যুদস্ত কিংবা কোথাও মনোযোগ দিতে পারছেন না এমন অনেক ব্যক্তিকে সাহায্য করছে তাদের এই সমস্যা থেকে উত্তরণে। এমন ও দাবী করা হয়েছে, এটি অস্থির কিংবা বিভিন্ন মানসিক রোগে ভোগা কোনো মানুষকে শান্ত করতে সাহায্য করে। যেমন, ADHD এবং autism. কিন্তু এটি তো আর আপনি ধরতে বা ছুঁতে পারবেন না! তাই মাউস এর মাধ্যমে স্পিন করতে পারবেন।

Animal sounds

আমার অনেকে জানিনা কোন প্রাণী কি ধরণের শব্দ করে। কিন্তু এখন এটা জানার জন্য কোন ধরণের এ্যপস বা সফটওয়ার ব্যবহার করা লাগবে না! শুধু গুগুলে Animal sounds লিখে সার্চ করলে সব প্রাণীদের ছবি প্রদর্শিত হবে। এবং পাশে থাকা সাউন্ড ট্যাবটিতে ক্লিক করলে তা শব্দ করে আপনাকে শুনাবে।

snake game

হুম, আমরা সব সময় গেম খেলার জন্য বিভিন্ন সফটওয়্যার ব্যবহার করি। কিন্তু আপনি গুগুলে আপনার কাজের ফাঁকে একটু বিনোদন ও নিতে পারবেন। তার জন্য আপনাকে
snake game লিখে বা লিঙ্কে ক্লিক করেও খেলে নিতে পারেন।

tic tac toe

tic tac toe এটিও একটি মজাদার খেলা যারা বুঝেন এক ক্লিক করেই খেলে নিতে পারেন।

solitaire

এটি আরেকটি মজার খেলা তার জন্য আপনাকে কোন ধরনের ওয়েবসাইটে প্রবেশ করতে হবেনা! শুধুমাত্র গুগলে solitaire সার্চ করেই তাস খেলতে পারবেন।

Zerg rush

Zerg rush লিখে গুগলে সার্চ করলেই একটি অবাক কাণ্ড ঘটবে! আপনার রেজাল্ট পেজে হানা দেবে অনেকগুলো ছোট ছোট ইংরেজি ‘O’ বর্ণ, দলে দলে আক্রমণ করে তোমার সবগুলো সার্চ রেজাল্ট লণ্ডভণ্ড করে দিতে থাকবে তারা!

এ অবস্থা থেকে বাঁচতে চাইলে আপনাকেও নামতে হবে যুদ্ধে, মাউসের কার্সরকে বন্দুক বানিয়ে ‘O’ বাহিনীর উপর ধুন্দুমার হামলা চালিয়ে একে একে গুঁড়িয়ে দিতে হবে তাদের! গুগলের বেশ মজার একটি গেম এই Zerg rush, নির্মল বিনোদনে এর জুড়ি মেলা ভার।

Atari breakout

‘atari breakout’ লিখে গুগল ইমেজে সার্চ দাও, দেখবে সাথে সাথে ছবিগুলো পাল্টে চলে আসবে ‘ব্রিক ব্রেকার’ এর মত একটি মজার গেম! তোমার কাজ হবে সার্চ রেজাল্টে আসা সব ছবিকে ধ্বংস করা! বেশ মজার একটি গেম এই Atari breakout। পুরনো দিনের গেমিং কনসোল Atari কে শ্রদ্ধা জানানোর জন্যই মূলত তৈরি করা হয়েছে গেমটি।

Flip a coin

কখনো যদি কোন বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিতে গিয়ে দোটানায় পড়ে যাও, কিংবা খেলাধুলায় কে আগে ব্যাট করবে/বল করবে এসব ব্যাপারে চাইলেই কিন্তু গুগলে টস করে ফেলতে পারবেন! Flip a coin লিখে সার্চ দিলেই চলে আসবে টস করার অপশন। সত্যিকারের টস করা, কয়েন খোঁজা এসব ঝামেলায় যেতে হবে না তোমাকে।

Do a Barrel roll/ z or r twice

গুগলের একদম শুরুর দিকের একটি ইস্টার এগ এটি। আপনি যদি ‘Do a Barrel roll’ কিংবা ‘z or r twice’ লিখে গুগলে সার্চ করেন, তাহলে সার্চ রেজাল্টের পাতাটি একেবারে ৩৬০ ডিগ্রি ঘুরে আবার আগের জায়গায় পৌঁছে যাবে! অর্থাৎ পাতাটি একটা ডিগবাজি খেয়ে নিবে! এই অবাক কাণ্ডটির পেছনে কিন্তু মজার একটা কারণও রয়েছে।

<blink>

গুগলে এটি লিখে সার্চ করলে সাধারণ সার্চ রেজাল্টের মতই ফলাফল চলে আসবে । কিন্তু একটি খেয়াল করলে দেখতে পাবেন সাধারণ রেজাল্টের সাথে খানিকটা তফাত আছে এই সার্চ পেইজের বেলায়! পেইজ জুড়ে যতখানে ‘blink’ শব্দটি আছে সেগুলো সত্যি সত্যি চোখের পলক ফেলার মতো ব্লিঙ্ক করেই যাবে!

google in 1998

গুগলের জন্ম সেই ১৯৯৮ সালে, মাত্র একুশজন কর্মীর হাত ধরে। তারপর সময়ের পথচলায় গুগল এক মহীরুহে পরিণত হয়েছে। অনবরত কাটাছেঁড়া আর ঘষামাজায় কত বদলে গেছে গুগলের খোলনলচে!

গুগল কিন্তু শুধু একটি সার্চ ইঞ্জিনই নয়, একরকম দার্শনিকও বটে

কারো যদি কৌতুহল হয় একদম শুরুতে গুগল কেমন ছিল দেখতে তাহলে গুগলে সার্চ করো ‘google in 1998’। গুগল সাথে সাথে তোমাকে নিয়ে যাবে সেই ১৯৯৮ সালের আদ্যিকালের গুগল হোমপেজে!

Roll a dice

সম্প্রতি লুডো স্টার গেমটি ব্যাপক জনপ্রিয়তা পেয়েছে আমাদের দেশে। এমনিতেও সময় কাটানোর জন্য লুডো খেলা আমাদের দেশে বহুল প্রচলিত একটি অভ্যাস। কিন্তু লুডো খেলতে গিয়ে ছক্কা যদি হারিয়ে ফেলো? সমস্যা নেই, কয়েন টস করার মতো ছক্কার সমস্যাও মিটিয়ে দেবে গুগল! Roll a dice লিখে সার্চ করলেই গুগল এনে দেবে ছক্কা, সেটি দিয়ে লুডো খেলা থেকে শুরু করে যা খুশি করতে পারবে তুমি!

Askew

শব্দটির অর্থ হলো একদিকে কাত হয়ে যাওয়া। Askew লিখে গুগলে সার্চ করলে ব্যাপারটি একদম প্রত্যক্ষ বুঝতে পারবেন, কারণ সার্চ রেজাল্টগুলো সত্যি সত্যি একদিকে কাত হয়ে থাকবে সব!

Google Gravity

এটা নিয়ে তেমন কিছু আর বলবো না। নিচের লিঙ্কে ঢুকে তোমরাই দেখে নাও মজার ব্যাপারখানা! গুগল পেইজ যদি মাধ্যাকর্ষণ শক্তির আওতায় পড়তো তাহলে কি হোমপেইজের মাঝখানে গুগলের লোগো এরকম শূন্যে ঝুলে থাকতে পারতো? নাকি সব ঝুপঝাপ করে ধ্বসে পড়তো মাটিতে! এমন অনেক মজার কাণ্ডকারখানা দেখতে ঘুরে এসো এই লিঙ্কটি থেকে। http://mrdoob.com/projects/chromeexperiments/google-gravity/

কোনো সমস্যায় আটকে আছেন? প্রশ্ন করার মত কাউকে খুঁজে পাচ্ছেন না? যেকোনো প্রশ্নের উত্তর পেতে চলে চলে আসুন সম্ভব ডটকমের প্রশ্ন উত্তর ব্লগে।