আপনার ফোনে ক্ষতিকর এই অ্যাপগুলো নেই তো?

56
বিপজ্জনক অ্যাপ
বিপজ্জনক অ্যাপ

অ্যান্ড্রয়েড ফোন ব্যবহারকারীদের ক্ষতিকর অ্যাপ থেকে সতর্ক থাকতে হয়। ব্যক্তিগত তথ্যের সুরক্ষা চাইলে ক্ষতিকর অ্যাপ ব্যবহারে সতর্ক হওয়ার বিকল্প নেই। গুগল নানাভাবে তাদের প্লেস্টোরকে সুরক্ষিত করার চেষ্টা করছে।

তারপরও অনেক ক্ষতিকর অ্যাপ বা প্রোগ্রাম স্মার্টফোনে চলে আসতে পারে। প্লেস্টোরে ক্ষতিকর অ্যাপ আসা ঠেকাতে তিন নিরাপত্তা প্রতিষ্ঠানকে নিয়ে জোট বেঁধেছে গুগল। কোনো অ্যাপ প্রকাশ পাওয়ার আগে তা অ্যান্ড্রয়েড ব্যবহারকারীর জন্য ক্ষতিকর কি না, তা খুঁজে বের করার লক্ষ্যে কাজ করবে ‘অ্যাপ ডিফেন্স অ্যালায়েন্স’ নামের ওই জোট। গুগলের সঙ্গে অ্যাপ ডিফেন্স অ্যালায়েন্স গড়েছে ইসেট, লুকআউট ও জিম্পোরিয়াম।

প্লে স্টোর থেকে ৮৫টি অ্যাপ সরিয়ে ফেলেছে গুগল৷ অ্যাপগুলো অ্যান্ড্রয়েড প্লে স্টোর থেকে ডাউনলোড করা যেত৷ গুগল বলছে, এসব অ্যাপের মাধ্যমে স্মার্টফোনে অ্যাডওয়ার আক্রমণ করত৷ তাই অ্যাপ্লিকেশনগুলো সরিয়ে দেওয়া হয়েছে ৷


গত বছর ২২টি ক্ষতিকর অ্যাপ প্লে স্টোর থেকে সরিয়ে নিয়েছিল গুগল৷ এ অ্যাপগুলো ২০ লাখবার ডাউনলোড করা হয়েছে ৷

এই অ্যাপ আসলে অ্যাডওয়ার৷ এটি এক ধরনের সফটওয়্যার, যেটি কোনো স্মার্ট ফোন বা কম্পিউটারে প্রবেশ করলে সেগুলোর ক্ষতি করতে পারে৷ এটি ডাউনলোড হয়ে গেলে মোবাইল আনলক করলেই ইউজারদের মোবাইল স্ক্রিনে ভেসে ওঠে নানা বিজ্ঞাপন৷ এতে ক্ষতি হয় মোবাইল ফোনের৷

যে ৮৫টি ক্ষতিকর অ্যাপ গুগল বন্ধ করে দিয়েছে

স্পোর্টস টিভি, টিভি ওয়ার্ল্ড, আমেরিকান মাসল কার, এসি রিমোট, টিভি রিমোট, বাস ড্রাইভার, পার্কিং গেম, রেসিং ইন কার থ্রিডি গেম, নাইজেরিয়া টিভি, টিভি ইন ইংলিশ, পাইরেট স্টোরি, ফটো এডিটর কলেজ ১, স্প্যানিশ টিভি, রিমোট কনট্রোল, ট্রাম্প স্টিকার্স, লাভ স্টিকার্স, ক্রিস্টমাস স্টিকার্স, টিভি ইন স্পেনিস, ব্রাজিল টিভি, ওয়ার্ল্ড টিভি, চ্যালেঞ্জ কার স্টান্ট গেম, প্রাডো কার, ইউকে টিভি, পোলস্কা টিভি, প্রাডো পার্কিং সিটি, এক্সট্রিম ট্রাকস, প্রাডো কার টেন, প্রাডো পার্কিং, থ্রিডি রেসিং, টিভি, জিএ প্লেয়ার, পর্তুগাল টিভি, মুভিজহ স্টিকার্স, রেসিং কার থ্রিডি, রেসিং কার থ্রিডি গেম ইত্যাদি৷

বর্তমানে ২৫০ কোটিরও বেশি ডিভাইসে চলছে অ্যান্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেম। গুগলের মতে, ব্যবহারকারীর সংখ্যা এত বেশি হওয়ায় সাইবার অপরাধীদের লক্ষ্যবস্তুতে পরিণত হয়েছে গুগল প্লেস্টোর

ক্ষতিকর অ্যাপের মধ্যে লুকানো ম্যালওয়্যার বা গোপন কোডের সাহায্যে ব্যবহারকারীর সংবেদনশীল ডেটা হাতিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করা হয়।

গুগলের জোট বাঁধার পরদিনই গবেষণা প্রতিষ্ঠান ট্রেন্ড মাইক্রোর পক্ষ থেকে প্লেস্টোরে কয়েকটি গেম ও ক্যামেরাসংশ্লিষ্ট বিপজ্জনক অ্যাপের তথ্য প্রকাশ করা হয়েছে। এসব অ্যাপে থাকা অ্যাডওয়্যার অ্যান্ড্রয়েড ফোনে বিরক্তিকর বিজ্ঞাপন দেখাতে পারে।

গুগলের পক্ষ থেকে অবশ্য এসব অ্যাপের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। কিন্তু এসব অ্যাপ সরিয়ে ফেলার আগে ৩০ লাখ বার ডাউনলোড হয়েছে। আপনার ফোনে থাকলে এসব অ্যাপ দ্রুত সরিয়ে ফেলার পরামর্শ দিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা।

কম দামে ভালো ফোন: ৫ থেকে ১০ হাজারের মধ্যে সেরা ফোন

ক্ষতিকর অ্যাপ গুলো হচ্ছে:

ট্রু লাভ ক্যালকুলেটর, ট্রিপি ইফেক্ট: ফটো অ্যান্ড ক্যামেরা ফিল্টার, ট্যাটু মেকার, ট্যাটু এডিটর, স্মোক ইফেক্ট, স্মোক ইফেক্ট আর্ট, স্লাইস মাস্টার, স্কাল ফেস: ফটো অ্যান্ড ক্যামেরা ইফেক্টস, শুট ইট, রানিং ডাইনোসর, রুলিং দ্য ডিফারেন্স, রিভার্স ভিডিও এডিটিং, পিক্সেল ইফেক্ট: ফটো এডিটর অ্যান্ড ওভারলে, ফটো স্মোক ইফেক্ট, ফটো ওভারলেইস, ফটো ব্লেন্ডার, নিওন লাইট ফটো এডিটর: ম্যাজিক ইফেক্ট, মিউজিক্যাল রোলিং রোড, মিউজিক্যাল বলস, মিউজিক ভিডিও মেকার, মোটরসাইকেল বাইক রেস, মাস্টার স্ক্রিন রেকর্ডার, ম্যাজিক ভিডিও এডিটিং, ম্যাজিক সুপার পাওয়ার, ম্যাজিক পেনসিল স্কেচ, ম্যাগাজিন ফটো এডিটর, ম্যাগাজিন কভার মেকার, ম্যাগাজিন কভার স্টুডিও, লাভ টেস্ট, লাভ পেয়ার, হাউস পেইন্টিং, হাউস ড্রয়িং কালার পেইন্ট, ঘোস্ট প্র্যাংক, গ্যালাক্সি ওভারলে ব্লেন্ডার, ফানি ফেক, ফ্লো পয়েন্টস, ডাইনামিক ব্যাকগ্রাউন্ড, কাট পারফেক্টলি, কালার স্প্ল্যাশ ফটো ইফেক্ট, ক্লাউন মাস্ক, ক্যাট রিয়েল হেয়ারকাট, বুলেট মাস্টার, বাবল ইফেক্ট, ব্লার ইমেজ ফটো, বিউটিফুল হাউস পেইন্ট, বলস আউট পাজল, বলস এসকেপ।

আরো পড়ুন: